মনোনয়ন ফিরে পেতে হাইকোর্টে খালেদা জিয়ার রিট

editor ১০ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ breaking slider-top প্রধান খবর

কালের কাগজ ডেস্ক ::০৯ ডিসেম্বর ,রবিবার । ।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার তিন আসনে মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে।

রোববার (০৯ ডিসেম্বর) বিকেলে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ রিট দায়ের করা হয়।

বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের ডিভিশন বেঞ্চে এ রিটের শুনানি সোমবার অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

এর আগে আজ দুপুরে রায়ের কপি পাওয়ার পর আইনজীবীরা এটি নিয়ে হাইকোর্টে আসেন। দ্বৈত আদেশের এ রায়ের কপি মোট দুই পৃষ্ঠা।

এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার কায়সার কামাল জানান, খালেদা জিয়া রিটার্নিং কর্মকর্তা ও নির্বাচন কমিশনে ন্যায়বিচার পাননি। তাই তিনি হাইকোর্টে রিট দায়ের করেছেন। আমরা আশা করছি, উচ্চ আদালতে তিনি ন্যায়বিচার পাবেন।গত ৮ ফেব্রুয়ারিতে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দেয় নিম্ন আদালত। সেই থেকে পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে রয়েছেন তিনি। মাঝে চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ছিলেন তিনি। পরে আবার তাকে সেখানে ফিরিয়ে নেয়া হয়।

এরপর আপিল করলে সাজা বাড়িয়ে ১০ বছর করে হাইকোর্ট। এদিকে জিয়া চ্যারিটবেল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৭ বছরের কারাদণ্ড হয় তাকে।

মনোনয়ন বাতিলের দিন পুলিশ অভিযোগ করে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাদণ্ড ভোগ করছেন সেহেতু নির্বাচন করতে পারবেন না। পরে রির্টানিং কর্মকর্তা তার মনোনয়নপত্র বাতিল করেন।

গতকাল-শনিবার আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থিতা পেতে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মনোনয়ন বাতিলে রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে করা আপিলও সংখ্যাগরিষ্ঠের মতের ভিত্তিতে খারিজ করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।আপিল শুনানির পর সন্ধ্যায় ইসি এ সিদ্ধান্ত নেয়। জ্যেষ্ঠ কমিশনার মাহবুব তালুকদার খালেদার মনোনয়ন বৈধ বলে রায় দিলেও প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ অন্য তিন কমিশনার আপিলের বিরুদ্ধে রায় দেন।

ফলে খালেদার তিনটি আসনের মনোনয়নপত্রই বাতিল করা হয়। দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হওয়ার কারণ দেখিয়ে খালেদার বিরুদ্ধে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এতে সংখ্যাগরিষ্ঠের মতের ভিত্তিতে তিনটি আসনেই খালেদা জিয়ার মনোনয়ন বাতিল হয়ে যায়।

কালের কাগজ/প্রতিবেদক/জা.উ.ভি

সম্প্রতি সংবাদ