নেতাদের শপথ নিয়ে রিজভী-ফখরুলের বিপরীতমুখী বক্তব্য, মিথ্যাচারের ফাঁদে বিএনপি

editor ৭ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ জাতীয়

কালের কাগজ ডেস্ক:০৪ মে-২০১৯,শনিবার।

নানা নাটকীয়তার পর বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাড়া শপথ নিয়েছেন বিএনপির ৫ বিজয়ী। এমন প্রেক্ষাপটে শপথ গ্রহণ নিয়ে দলটির দুই নেতা রুহুল কবির রিজভী ও মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বিপরীতমুখী বক্তব্য দিয়েছেন। এতে মিথ্যাচারের ফাঁদে পড়েছে বিএনপি।

শপথের পর রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, সরকারের পক্ষ থেকে শপথের জন্য চাপ প্রয়োগ করা হয়েছে। অন্যদিকে শপথের পর মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, বিএনপির ওপরে কোনো চাপ নেই, তারেক রহমানের নির্দেশে তারা শপথ নিয়েছেন।

বিএনপির দুই নেতার এমন বিরোধপূর্ণ বক্তব্যে সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছেন তারা। এদিকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্য সত্য নাকি রিজভীর বক্তব্য সত্য- তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে সর্বস্তরে। সমালোচনা উঠেছে, বিএনপি বিভিন্ন ইস্যুতে যে মিথ্যাচার করে তা দুই নেতার বিরোধপূর্ণ বক্তব্যের মাধ্যমে প্রমাণ হলো।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ‘ভোট ডাকাতির’ অভিযোগ তোলা বিএনপির নির্বাচিত পাঁচজন শপথ নেওয়ার পর মির্জা ফখরুল বলেন, দলের সিদ্ধান্তেই তারা শপথ নিয়েছেন। যদিও এতদিন তারা বলছিলেন, এই সরকার ও সংসদকে বৈধতা দিতে তাদের কেউ শপথ নেবেন না।

এমন প্রেক্ষাপটে আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বিএনপির সাংসদদের শপথ গ্রহণকে ‘গাধার মতো জল ঘোলা করে’ পানি খাওয়ার সঙ্গে তুলনা করেছেন। তিনি বলেছেন, দুঃখজনক হলেও সত্য যে গাধা জল ঘোলা করে খায়, বিএনপি এমপিদের সে রকমের অবস্থা হয়েছে। বিএনপির নেতাদের শপথ নেয়াটা গাধা যেমন জল ঘোলা করে খায় সে রকম হলো। তবে তারা যে শপথ নিয়েছে এর জন্য অভিনন্দন জানাই।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং রিজভীর বিরোধপূর্ণ বক্তব্য নিয়ে খোদ বিএনপি নেতা গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ও দলের সমন্বয়হীনতাকে দুষেছেন। তিনি বলেছেন, দলের পাঁচজন পার্লামেন্টে গেছেন। তারা বলেছেন-নেত্রীর কথা, কিন্তু দেশের কথা কেউ বলছেন না। অথচ তারা কিন্তু দেশের কথা বলতেই সংসদে গেছেন। কেউ কেউ বলেছেন, জনগণের চাপে তারা সংসদে যাচ্ছেন। আবার কেউ কেউ বেকুবের মতো বলছে, সরকারের চাপ। জনগণের চাপ সত্য নাকি সরকারের চাপ? আমরা এলোমেলো কথা বলে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করেছি। অর্থাৎ যারা সংসদে গেছেন এবং যারা সংসদে না গিয়ে নিজেকে হিরো প্রমাণ করতে চেয়েছেন তারা উভয়ই বিএনপিকে নিয়ে খেলছে বলে আমার সন্দেহ হয়।

সম্প্রতি সংবাদ