ব্রেকিং নিউজ

মেয়াদোত্তীর্ণ কোমল পানীয় ও ইফতার সামগ্রী বিক্রয় করায় জরিমানা

editor ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ১২মে-২০১৯,রবিবার।
সিরাজগঞ্জ সদরের শিয়ালকোল বাজারে ও ২ নং খলিফা পট্টিতে রবিবার বিকালে অভিযান চালিয়ে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আনিসুর রহমান এর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আদালত সূত্রে জানা যায়, রবিবার বিকালে প্রথমে শিয়ালকোল বাজারে ঘোষ মিষ্টান্ন ভান্ডারে অভিযান চালানো হয়।সেখানে ক্লেমন কোমল পানীয় এর বিপুল পরিমাণে মেয়াদোত্তীর্ণ বোতল পাওয়া যায় এবং পূর্বের দিনের ছোলা ও জিলাপী ফ্রেশ ছোলা ও জিলাপী সাথে মেশানোর জন্য সংগ্রহে রাখা হয়। এসব মেয়াদোত্তীর্ণ ছোলা ও জিলাপী অসাধু ব্যবসায়ীরা সুযোগ বুঝে মিশিয়ে বিক্রয় করে থাকে। মেয়াদোত্তীর্ণ কোমল পানীয় ও ইফতার সামগ্রী বিক্রয় করার অপরাধে ঘোষ মিষ্টান্ন ভান্ডারকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও মেয়াদোত্তীর্ণ সামগ্রী জনসম্মুখে ধবংস করা হয়। এরপর ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পৌর এলাকার ২ নং খলিফা পট্টির খান মিষ্টান্ন ভান্ডারে।সেখানে ১ কেজির খালি মিষ্টির প্যাকেটের ওজন পাওয়া যায় ১৪৪ গ্রাম।অর্থাৎ দোকানদার প্রতি কেজি মিষ্টিতে ১৪৪ গ্রাম কম মিষ্টি দিয়ে পুরো এক কেজি মিষ্টির দাম নিচ্ছে। যদি মিষ্টির দাম ২৪০ টাকা হয় তবে গ্রাহক প্রতি কেজিতে প্রায় ৩৫ টাকা ঠকছে।এভাবে অতিরিক্ত ওজনের খালি মিষ্টির প্যাকেটে মিষ্টি বিক্রয়ের অপরাধে খান মিষ্টান্ন ভান্ডারকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। উক্ত অভিযানে সহযোগিতা করেন পেশকার মিলন সরকার,পুলিশ ও আনসার ব্যাটালিয়নের সদস্যবৃন্দ।
কালের কাগজ/প্রতিনিধি/জা.উ.ভি

সম্প্রতি সংবাদ