সংবাদপত্র কর্মচারী ও প্রেস শ্রমিকরা গণমাধ্যমের গুরুত্বপূর্ণ অংশ: তথ্যমন্ত্রী

editor ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ breaking জাতীয়

কালের কাগজ ডেস্ক : ১৫ মে, ২০১৯,বুধবার।

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘সংবাদপত্র কর্মচারী ও প্রেস শ্রমিকরা গণমাধ্যমের গুরুত্বপূর্ণ অংশ। সংবাদপত্র প্রকাশ ও মানুষের কাছে তা পৌঁছানোতে তাদের ভূমিকা প্রশংসার দাবিদার।’

বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বাংলাদেশ সংবাদপত্র কর্মচারী ফেডারেশন ও বাংলাদেশ ফেডারেল ইউনিয়ন অব নিউজ পেপার প্রেস ওয়ার্কার্স এর সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তথ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন।

সংগঠন দুটির নেতারা এ সময় ১০টি দাবি সম্বলিত একটি যৌথ স্মারকলিপি মন্ত্রীকে হস্তান্তর করেন। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে-দ্রুত নবম ওয়েজবোর্ডের গেজেট প্রকাশ, কর্মচারি ও প্রেস শ্রমিকদের জন্য কল্যাণ ট্রাস্ট গঠন, নিউজ পেপার সার্ভিস অ্যাক্ট ১৯৭৪ ফিরিয়ে আনা, নিজস্ব অফিস ভবন ও আবাসনের ব্যবস্থা, সংবাদপত্র শিল্প নীতিমালা প্রণয়ন, সংবাদপত্র শিল্পের সুবিধা শ্রমিক কর্মচারীদেরকে সাংবাদিকদের সমান হারে দেওয়া, কর্মচারী-শ্রমিকদের বকেয়া দ্রুত পরিশোধ, ছাঁটাই বন্ধ ও অস্থায়ী শ্রমিক-কর্মচারীদের ছয় মাসের মধ্যে স্থায়ী করা, ট্রেড ইউনিয়নের পূর্ণ অধিকার দেওয়া ও ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়ন না করা পত্রিকায় সরকারি সুবিধা বন্ধ করা। মন্ত্রী দাবিগুলো সুবিবেচনার আশ্বাস দেন।

বাংলাদেশ সংবাদপত্র কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি মো. মতিউর রহমান তালুকদার ও বাংলাদেশ ফেডারেল ইউনিয়ন অব নিউজ পেপার প্রেস ওয়ার্কার্স এর সভাপতি মো. আলমগীর হোসেন খানের নেতৃত্বে কর্মচারীদের প্রতিনিধি মো. বজলুর রহমান মিলন, মো. খায়রুল ইসলাম, আমিনুল ইসলাম, মো. মাহবুব আলম, মো. সেকান্দার আলী, শ্রী দেবেন্দ্রনাথ মজুমদার, মো. সোহেল আহমদ এবং মো. আসাদুজ্জামান এবং শ্রমিক প্রতিনিধি মো. কামাল উদ্দিন, মো. শামীম চৌধুরী, মো. আহসান উল্লাহ, মো. আবু কাউসার, মো. তাজাম্মেল হক, মো. আব্দুল মান্নান, মো. রফিকুল ইসলাম এবং লিয়াকত আলী সভায় অংশ নেন।

সম্প্রতি সংবাদ