ব্রেকিং নিউজ

জোটের রাজনীতিতে সক্রিয় জামায়াত, ২০ দল ও ঐক্যফ্রন্টকে জামায়াত আমীরের পরামর্শ

editor ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ জাতীয়

নিজস্ব প্রতিবেদক:১৭ মে-২০১৯,শুক্রবার।

নানা রাজনৈতিক ঘটনা প্রবাহের মধ্যে নতুন ব্যঞ্জনা তৈরি করলো বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। এবার আড়ালে থাকা শরিক দল জামায়াতের নেতা ২০ দলীয় জোট এবং জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে পরামর্শ দিয়েছেন। ফলে প্রশ্ন উঠেছে, রাজনীতিতে গোপনে থাকা জামায়াতের নেতারা হঠাৎ সক্রিয় হয়ে কী প্রমাণ করতে চাইছেন? তবে কি দুই জোটেই সক্রিয় জামায়াত?

২০ দলীয় জোটের ঘনিষ্ঠ শরিক বাংলাদেশ জামায়াতের ইসলামী বিএনপির পুরনো ও সবচেয়ে বিশ্বস্ত বন্ধু। নির্বাচনকালীন জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠনের সময় জামায়াতে ইসলামীকে জোটে রাখা না রাখা নিয়ে সমালোচনাও শুরু হয়েছিলো। নানা সমালোচনার মুখেও বিএনপি জামায়াতকে ছাড়তে রাজি হয়নি। ফলে দীর্ঘদিন চর্চিত এই আলোচনা কিছুটা হ্রাস হয়ে আসলেও ২০ দল ও ঐক্যফ্রন্টকে জামায়াতের আমীরের পরামর্শ দেয়ায় তা নতুন করে সমালোচনার সূচনা হয়েছে।

বিএনপি নেতৃত্বাধীন দুই জোটকে জনগণের সেন্টিমেন্ট(অনুভূতি) বুঝে নিজেদের কৌশল স্পষ্ট করার তাগিদ দিয়েছেন জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর মিয়া গোলাম পরওয়ার। বুধবার (১৫ মে) জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ‘বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং মধ্যবর্তী নির্বাচন’ শীর্ষক এক গোলটেবিল আলোচনা সভায় তিনি এই তাগিদ দেন।

গোলাম পরওয়ার বলেন, ঐক্যফ্রন্ট বলি আর ২০ দল বলি, আমাদের সবাইকেই কৌশলের বিষয়ে স্পষ্ট হতে হবে। জনগণের সঙ্গে আমরা রাজনীতি করি, কিন্তু তাদের সেন্টিমেন্ট যদি না বুঝি সেটাকে মানুষ কোনো ভাবেই কৌশল হিসেবে নেয় না। খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং বর্তমান এই ফ্যাসিবাদী সরকারের বিরুদ্ধে মুক্তির আন্দোলনে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলের সঙ্গে ছিল এবং থাকবে।

এমন প্রেক্ষাপটে গুঞ্জন উঠেছে দুই জোটেই এতদিন গোপনে সক্রিয় ছিলো জামায়াত। এবার প্রকাশ্যে আসতে শুরু করেছে। যা রাজনীতির জন্য বিশেষ ক্ষতিকারক সংকেত কিনা- তা নিয়ে যথেষ্ট ভাবনার অবকাশ রয়েছে।

সম্প্রতি সংবাদ