ব্রেকিং নিউজ

নবাবগঞ্জে দুর্বৃত্তের হামলায় নিহত ২আটক ২

editor ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ breaking সারাদেশ

নবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: ২৫ মে ২০১৯, শনিবার।
ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলায় দুর্বৃত্তদের হামলায় দু’জন নিহত হয়েছেন। উপজেলার বান্দুরা ইউনিয়নের মাঝিরকান্দার কাছে মহব্বতপুর তালতলা এলাকায় বৃহস্পতিবার রাত ১১টায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার গালিমপুর ইউনিয়নের নোয়াদ্দা এলাকার কদম আলীর ছেলে কৃষক আবুল কালাম (৫৫) ও ফৌজদার খানের ছেলে ব্যবসায়ী মো. জাহিদ (৪৪)। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দু’জনকে আটক করেছে পুলিশ।

এ জোড়া খুনের ঘটনায় এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। এর আগে ১৫ মে বিকালে আমিরপুর বাজারে শুভ নামে এক যুবক এবং ওই দিন রাতেই বান্দুরা বাজারে স্বর্ণ ব্যবসায়ী আনন্দ বণিক খুন হন।

স্বজনরা জানান, ইফতারের পর কালাম ও জাহিদ মোটরসাইকেলে নয়নশ্রীর দেওতলা গ্রামের নুরুল ইসলাম নুরুর বাড়িতে যায়। ওখান থেকে ফেরার পথে মহব্বতপুর তালতলাসংলগ্ন সড়কে তিন দুর্বৃত্ত রাস্তায় কলাগাছ ফেলে তাদের গতিরোধ করে এবং কালাম ও জাহিদকে এলোপাতাড়ি দা দিয়ে কোপাতে থাকে। দায়ের কোপে কালামের গলা কেটে গেলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

আর জাহিদের শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত লাগে। আহত জাহিদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে তাদের নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক কামরুজ্জামানের পরামর্শে ঢাকায় নেয়ার পথে জাহিদের মৃত্যু হয়।

কালামের স্ত্রী যমুনা বেগম ও জাহিদের লিজা আক্তার জানান, তারা কাজ করে সংসার চালাত। তাহলে কেন তাদের মরতে হল? আমরা এ হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই।

জাহিদের স্ত্রী লিজা আক্তার আরও জানান, মৃত্যুর আগে জাহিদ তাকে ও তার স্বজনদের জানিয়েছে, তিনজন লোক মোটরসাইকেলে এসে কালাম ও জাহিদকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত হয়েছে ভেবে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে নবাবগঞ্জ থানার ওসি মোস্তফা কামাল বলেন, সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মিটফোর্ড হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি আমরা দেখছি। পুলিশ পরিদর্শন করেছে। অপরাধী যেই হোক তাদের খুঁজে বের করা হবে।

এ ঘটনায় দু’জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন নবাবগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম। তবে তাদের পরিচয় জানাননি।

কালের কাগজ/প্রতিনিধি/জা.উ.ভি

সম্প্রতি সংবাদ