পীরগঞ্জে সেপটিক ট্যাংকে নেমে প্রাণ গেল ২ যুবকের

editor ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ breaking সারাদেশ

রংপুর প্রতিনিধি:১১ জুন, ২০১৯,মঙ্গলবার।
রংপুরের পীরগঞ্জে পায়খানার সেপটিক ট্যাংকে পড়ে যাওয়া মোবাইল তুলতে গিয়ে ২ যুবক প্রাণ হারিয়েছে। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় আরও ১ যুবককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সোমবার রাতে উপজেলার রামনাথপুর ইউনিয়নের বড়ঘোলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী ও ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়, উক্ত গ্রামের শমেশ উদ্দিনের ছেলে দলু মিয়া (২৮) প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গেলে অসাবধানতা বশতঃ তার মোবাইল ফোনটি পায়খানায় পড়ে যায়। সেপটিক ট্যাংক হতে মোবাইলটি তুলতে গিয়ে সে বাঁশ বেয়ে ট্যাংকে নেমে পড়েন। দীর্ঘক্ষণ পরেও সে উপরে উঠে না আসায় তাকে উদ্ধারে প্রতিবেশী যুবক রংপুর কারমাইকেল বিশ্ববদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্র আজাহার আলীর ছেলে এনামুল হক (২০) ওই ট্যাংকে নেমে পড়ে। এদের দু জনের কোন সাড়া না পাওয়ায় স্থানীয় শাহীন নামের অপর এক যুবকও সেখানে নেমে পড়ার পর ৩ জনেরই কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়া হয়। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সেপটিক ট্যাংক থেকে ৩ যুবককে উদ্ধার করে।

এদের মধ্যে এনামুল হক সেখানেই এবং হাসপাতালে নেয়ার পথে দুলু মিয়া মারা যায়। অপর যুবক শাহীনকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা আশংকাজনক। পীরগঞ্জ থানার থানার ওসি সরেস চন্দ্র সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

কালের কাগজ/প্রতিনিধি/জা.উ.ভি

সম্প্রতি সংবাদ