শেরপুরে ঘরের টিনের বেড়া কেটে শিশু নেয়ার চেষ্টা, পুলিশের মাইকিং

editor ১০ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

(শেরপুর) প্রতিনিধি :২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার।

শেরপুরের শ্রীবরদীতে বসতঘরের টিনের বেড়া কেটে দুই শিশুকে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত সোমবার রাতে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা উপজেলার গোশাইপুর ইউনিয়নের বালিয়াচণ্ড গ্রামের মো. শাহজাহান মিয়ার শিশুকন্যা সাথী আক্তার শ্রাবন্তী (৩) ও ছেলে সিফাতকে (২) ঘর থেকে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

তবে শিশু দুটির বাবা-মার সচেতনতার কারণে তারা রক্ষা পেয়েছে। এ ঘটনার পর আতঙ্কে রয়েছে এলাকাবাসী। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে মাইকিং করে আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

শিশুর বাবা শাজাহান মিয়া মঙ্গলবার বিকালে যুগান্তরকে জানান, রাতের খাবার শেষে সোমবার রাত ১০টার দিকে তার শিশুকন্যা সাথী ও ছেলে সিফাতকে নিয়ে তিনি ঘুমিয়ে পড়েন। গভীর রাতে অজ্ঞাতনামা তিন ব্যক্তি তার বসতঘরের টিনের বেড়া কেটে প্রথমে তার শিশুকন্যা শ্রাবন্তীকে ঘর থেকে বের করে। পরে তারা তার বুকের সঙ্গে শুয়ে থাকা ছেলে সিফাতকে বের করে নেয়ার চেষ্টা করলে তার (শাহজাহান) ঘুম ভেঙে যায়। এ সময় ছেলে সিফাতের হাত টেনে ধরে তিনি চিৎকার দিলে ওই ব্যক্তিরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে সংবাদ পেয়ে রাতেই শ্রীবরদী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে।

গোশাইপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মতিবর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, এ ঘটনার পর সোমবার রাতে এলাকাবাসী বিভিন্নস্থানে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের সন্ধান করে। কিন্তু তারা পালিয়ে যাওয়ায় তাদেরকে ধরা সম্ভব হয়নি। সারা রাত এলাকার লোকজন ঘুমাতে পারেনি। বর্তমানে শিশু সন্তানদের নিয়ে এলাকাবাসী আতঙ্কে রয়েছে।

এ ব্যাপারে শ্রীবরদী থানার ওসি মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদার মঙ্গলবার বিকালে জানান, এ ঘটনায় কেউ অভিযোগ দেয়নি। তবে বিষয়টি তারা গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছেন এবং মাইকিংয়ের মাধ্যমে প্রচার করে এলাকাবাসীকে ছেলেধরা সম্পর্কে সচেতন থাকার ও আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। সেই সঙ্গে এলাকায় কোনো অপরিচিত ব্যক্তিকে দেখলে পুলিশে খবর দেয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

সম্প্রতি সংবাদ