ব্রেকিং নিউজ

টাঙ্গাইলে পাসপোর্ট অফিসে দালাল চক্রের ৯ সদস্য গ্রেফতার

editor ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

মুক্তার হাসান, টাঙ্গাইল থেকে ঃ০৩ অক্টোবর-২০১৯,বৃহস্পতিবার।

টাঙ্গাইল জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি দাক্ষিন) পাসপোর্ট অফিসের আশে পাশে অভিযান চালিয়ে দালাল চক্রের ০৯ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে। বুধবার বিকেলে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে তাদের সাজা প্রদান ও জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। জানা যায়, এরা পাসর্পোট করতে আসা গ্রাহকদের কাছ থেকে পাসর্পোট করে দেয়ার নাম করে অতিরিক্ত টাকা নিয়ে থাকে। নামপ্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন দালাল চক্রের সদস্য জানায়, আমরা ২০০ টাকার কামলা মাত্র ,পাসর্পোট করতে আসা সব মানুষগুলো ফর্ম ফিলাপ করতে পারেনা আমরা ফর্ম ফিলাপ করে ফাইল রেডিকরে দেই বিনিময় পাই মাত্র ২০০টাকা ,কিন্তু অফিস চ্যানেল ফির নামে অলিখিত ভাবে নিচ্ছে ১২০০টাকা । অফিসের ভিতরে সব জায়গায় সিসি ক্যামেরা থাকলেও যে কক্ষে চ্যানেল ফি নেয়া হয় সে কক্ষটি সি সি ক্যামেরার আওতায় নেই। চ্যানেল ফির টাকা পাওয়ার পর ফরমে একটি সিল বা সংকেত দিযে ফাইলটি গ্রাহকের হাতে দিয়ে লাইনে দাড়া করানো হয়। ফরমে সিল বা সংকেত ছারা কেহ লাইনে দারালে তাদের ফরম টি বিভিন্ন অজুহাতে বাতিল করা হয় বা জমানেয়া হয়না। যেমন জন্মনিবন্ধন থাকলে বলে ভোটার আইডি ও লাগবে, বোটার আইডি জন্মনীবন্ধন থাকলে বলে চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট লাগবে ,তানা হলে বলে মেম্বার কে সাথে করে নিয়ে আসতে হবে এভাবে অফিস থেকে গ্রাহকদের হয়রানি করে। পরে গ্রাহক কোন উপায়ন্তর না দেখে বধ্য হয়ে চ্যানেল ফি দেয়,আর গ্রাহকদের চ্যানেল ফির বিষয় বোঝানোর জন্যত অফিসে আনসার বাহিনী আছেই, আর আমরা ফর্ম ফিলাপ করে পাঠিয়ে দেই। তাছাড়া চ্যানেল ফি ছারা যদি কনো গ্রাহক যায় তখনি অফিস পুলিশ ডেকে আমাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে। তারা আরো জানান এই চ্যানেল ফির টাকা নাকি ক্যসিনোর টাকার মত পার্সেন্টেন’স বিভিন্ন জায়গায় দিতে হয়, এখানে ও সরকারের শুদ্ধি অভিযান চালানো উচিৎ বলে আমি মনে করি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে অফিস কতৃপক্ষ বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।

কালের কাগজ/প্রতিনিধি/জা.উ.ভি

সম্প্রতি সংবাদ