ব্রেকিং নিউজ

ঘিওরে রেশন কার্ডের আশায় দুস্থ ও কর্মহীনলোকজন দ্বারে দ্বারে ঘুরছে

editor ৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

রামপ্রসাদ সরকার দীপু ঘিওর( মানিকগঞ্জ ):০৯ মে-২০২০,শনিবার।
মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের অসহায় দুস্থ ও কর্মহীন লোকজন রেশন কার্ডের আশায় স্থানীয় প্রশাসন, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও জনপ্রতিনিধিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে। প্রতি মাসে এলাকার অসহায় সুস্থ ও কর্মহীন লোকজন ১০ টাকা কেজিতে প্রতি মাসে ২০ কেজি চাল পাবে। গত এক সপ্তাহ আগে এর কার্যক্রম শেষ হবার পরেও অনেক লোকজন কার্ড পাবার আশায় দ্বারে দ্বারে ঘুরছে।
জানা গেছে, উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের অধিকাংশ লোকজন গরিব। ৭টি ইউনিয়নে মোট ৫ হাজার ১শ’ ৮০টি কার্ড দেওয়া হয়েছে। ফলে সরকারের এই সুবিধা থেকে অনেক গরিব ও দুস্থরা বাদ পরবেন। এলাকা বহু লোকজন জন প্রতিনিধিদের কাছে প্রতিনিয়ত ঘুরছেন। মধ্যবিত্তরা মুখ ফুটে কেউ কিছু বলতে পারছেনা। তবে অনেকের ভাবছেন, চাল ছাড়াও তেল, ডাল, লবনসহ অন্যান্য পণ্য রেশন কার্ডের সাথে স্বল্প মুল্যে পাওয়া যাবে। তবে তা সঠিক না। আপাতত এই কার্ডের মাধ্যমে শুধু চাল পাওয়া যাবে। তবে ঘিওর উপজেলার অনেক জনপ্রতিনিধিরা বহুল আলোচিত এই রেশন কার্ড নিয়ে বিপাকে আছেন। লোকজনের চাহিদা অনুযায়ী জনপ্রতিনিধিরা এলাকায় অর্ধেক কার্ডও পাচ্ছেনা। ফলে তাদের প্রত্যাশা অনুযায়ী এলাকার অসহায় দুস্থদের এই রেশন কার্ডের আওতাভুক্ত করতে পারবেনা। বেশির ভাগ দুস্থরাই বাদ পরবেন। আর কয়েক দিন পরেই কার্ড বিতরন শুরু হবে। জনপ্রতিনিধিরা বির্বতকর অবস্থায় পরবেন বলে অনেকে ধারনা করা করছেন। ইতোমধ্যে অতি গোপনে এলাকার জনপ্রতিনিধিরা তালিকা তৈরি করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে জেলা প্রশাসকের কাছে পাঠিয়েছেন।
ঘিওর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ অহিদুল ইসলাম টুটুল জানান, আমার সদর ইউনিয়নে মোট ৮শ’ ৬০টি কার্ড দেওয়া হয়েছে। আমার এলাকার অধিকাংশ লোকজন দিন মজুর ও শ্রমিক । এরা সবাই দরিদ্র সিমার নিচে বসবাস করে। কাজেই আমার এলাকাতে আরো অনেক রেশন কার্ডের প্রয়োজন। তবে অন্যান্য উপজেলাতে আমাদের তুলনায় অনেক বেশি কার্ড দেওয়া হয়েছে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার আইরিন আক্তার জানান, ঘিওরে ৫ হাজার ১শ’ ৮০টি রেশন কাড বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। রেশন কার্ডধারী প্রতিজন ১০ টাকা কেজিতে প্রতি মাসে ২০ কেজি দরে চাল কিনতে পারবেন। দু-একদিনের মধ্যেই কার্যক্রম শুরু হবে। স্থানীয়ভাবে ডিলারদের মাধ্যমে এ চাল বেচা হবে। তবে কার্ড ধারীরা শুধু মাত্র চালই পাবে বলে তিনি জানিয়েছেন।