ব্রেকিং নিউজ

মানিকগঞ্জে কেজি স্কুল শিক্ষকদের মাঝে ঈদ উপহার দিলেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলী আকবর

editor ৮ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

মো. ইউসুফ আলী, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট:১৯ মে-২০২০,মঙ্গলবার।

মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলার ৪৬টি কেজি স্কুলের প্রায় ৫ শতাধিক শিক্ষকদের মাঝে ঈদ উপহার দিলেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী আকবর।
উপজেলার বিভিন্ন এলাকার স্কুলের শিক্ষকদের মাঝে এসব উপহার পৌঁছে দেয়ার জন্য আজ মঙ্গলবার ( ১৯ মে) সকালে আরিচা ঘাটে নিজ কার্যালয়ে শিবালয় উপজেলা কিন্ডার গার্টেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও শিক্ষানিলয় কিন্ডার গার্টেন (কেজি স্কুলের) অধ্যক্ষ মো. ইউনুস আলীর নিকট এসব উপহার সামগ্রী তুলে দেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী আকবর, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি মানিকগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. শাহজাহান বিশ্বাস, মানিকগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. শাহানুর ইসলাম, বাংলাদেশ সাংবাদিক সামিতি শিবালয় উপজেলা শাখার সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম, শুকতারা একাডেমীর অধ্যক্ষ মো. সৈকত মাহমুদ খান প্রমুখ।

শিক্ষানিলয় কিন্ডার গার্টেন (কেজি স্কুলের) অধ্যক্ষ মো. ইউনুস আলী বলেন, ঘাতক ব্যাধি করোনা ভাইরাসের কারণে সকল শ্রেণী পেশার মানুষই কর্মহীন হয়ে পড়েছে। বন্ধ হয়ে গেছে আয়-রোজগার। পরিবার পরিজন নিয়ে অনেক কষ্টে কাটছে তাদের দিন। এমতাবস্থায় সরকারী-বেসরকারীভাবে কর্মহীন অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান করলেও বঞ্চিত ছিল উপজেলার কিন্ডার গার্টেন স্কুলের শিক্ষকরা। এ পরিস্থিতে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী আকবর আমাদের শিক্ষকদের মাঝে উপহার হিসেবে ঈদ সামগ্রী প্রদানের জন্য যে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন আমরা তার জন্য চিরকৃতজ্ঞ।

শিক্ষক মো.উজ্জল হোসেন বলেন, করোনার এ দুর্যোগের সময় আমাদের কেউ কোন খোঁজ খবর নেয়নি। সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী আকবর সাহেবের ঈদ উপহার যাই হোক সে এ দুঃসময়ে আমাদের জন্য যে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন এর জন্য আমরা তার কাছে চিরকৃতজ্ঞ। এমতাবস্থায় আমরা সরকারীভাবে খাদ্য সহায়তা পাওয়ার জন্য বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি।

এ ব্যাপারে উপহার সামগ্রীর উদ্যোক্তা ও  শিবালয়ের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী আকবর বলেন, করোনার কারণে ধনী-গরিব সকল মানুষেরই সমস্য হচ্ছে। এর মধ্যে বেশী অসুবিধায় পড়েছে মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষজন। এরা না পারছে কাজ-কর্ম করতে, না পারছে কারো কাছে হাত পাততে। বিশেষ করে কিন্ডার গার্টেন স্কুলের শিক্ষকরা স্কুলের আয়ের উপর চলে তাদের সংসার। করোনার কারণে স্কুল বন্ধ থাকায় শিক্ষকদের বেতন-বোনাসও বন্ধ রয়েছে। এ পরিস্থিতে এসব শিক্ষকদের মাঝে ঈদ উপহার হিসেবে কিছু সহযোগীতা প্রদান করতে পেরে সৃষ্টি কর্তার কাছে কোটি কোটি শুকরিয়া আদায় করছি। তার এ সহযোগীতা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান। তিনি আরো বলেন, অতীতেও আমি জনগনের সাথে ছিলাম, এখনও আছি ভবিষতেও থাকবো। করোনার এ দুর্যোগে আমরা সকলে ঘরে থাকবো আর স্বাস্থবিধি মেনে চলব।

 

মো. ইউসুফ আলী

সম্প্রতি সংবাদ