ব্রেকিং নিউজ

সব খুলে দিয়ে সরকার কানে তুলো দিয়েছে : ফখরুল

editor ২৮শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ breaking slider-top প্রধান খবর

কালের কাগজ ডেস্ক: ০২ জুন, ২০২০

করোনা মহামারির ভয়াবহতা বিবেচনায় না এনে সবকিছু খুলে দিয়ে ‘সরকার কানে তুলো দিয়েছে’ বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। গতকাল সোমবার দলের চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ট্রেনগুলোতে গাদাগাদি করে মানুষ আসছে। রীতিমতো মারামারি হচ্ছে বাসে উঠার জন্য। লঞ্চেও একই অবস্থা। এটা সম্ভব না, বাংলাদেশে এভাবে গণপরিবহনকে নিয়ন্ত্রণ করবেন? এখন সরকারের অবস্থা হচ্ছে যে ‘কানে দিয়েছি তুলো। যা খুশি বলেন আমাদের (সরকার) কিছু যায় আসে না।’

বাসভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্তকে ‘অমানবিক’ অভিহিত করে মির্জা ফখরুল বলেন, মালিকদের স্বার্থে ভাড়া বাড়িয়েছে সরকার। মালিকদেরই আবার প্রণোদনা দিচ্ছে, অনুদান দিচ্ছে। পুরো বিষয়টা হয়েছে লুটপাটের জন্য। তিনি আরো বলেন, বারবার বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তাদের (সরকার) নিয়োজিত যে টেকনিক্যাল পরামর্শক কমিটি রয়েছে তারাও বলছেন যে এটা (সব কিছু খুলে দেওয়া) একটা সুইসাইডাল। এটা করলে একটা ভয়ংকর অবস্থা তৈরি হবে। তারা সেই কথা শুনেননি। জনগণকে পুরোপুরিভাবে মহাবিপদের দিকে ঠেলে দেওয়া হয়েছে।

সংবাদ সন্মেলনে করোনা ভাইরাসের কারণে কৃষি ও কৃষকদের নাজুক-দুর্বিষহ অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে ১০ দফা প্রস্তাবনা তুলে ধরেন বিএনপি মহাসচিব। এর মধ্যে আছে—আগামী এক বছর পোলট্রি ও ডেইরিসহ সব ধরনের কৃষিঋণের কিস্তি সুদসহ মওকুফ, বীজ, সার, কীটনাশক, সেচে ভর্তুকিসহ প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ, কৃষকদের উৎপাদিত ধানের বিপরীতে কমপক্ষে তিন মাসের সমপরিমাণ টাকা বিনা সুদে প্রদান, কৃষকদের কাছ থেকে ধান ক্রয়ে অতিরিক্ত ১০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ ইত্যাদি।

সংবাদ সম্মেলনে দলের ভাইস-চেয়ারম্যান কৃষক দলের আহ্বায়ক শামসুজ্জামান দুদু, সদস্য সচিব হাসান জাফির তুহিন, বিএনপির তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক রিয়াজউদ্দিন নসু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সম্প্রতি সংবাদ