ব্রেকিং নিউজ

মানিকগঞ্জে আইসোলেশন ওয়ার্ডে দুই নারীর মৃত্যু

editor ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ breaking সারাদেশ

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি:২২ জুন-সোমবার।
মানিকগঞ্জ জেলা ২৫০ শয্যা হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুই নারীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল রোববার বিকেলে একজনের এবং অপরজনের রাতে মৃত্যু হয়। মঙ্গলবার সকালে হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আরশ্বাদ উল্লাহ এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এ নিয়ে মানিকগঞ্জে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) উপসর্গ নিয়ে ১৮ মৃত্যু হলো।
আইসোলেশন ওয়ার্ডে মারা যাওয়া এক নারীর (৪০) বাড়ি জেলার ঘিওর উপজেলার বরটিয়া ইউনিয়নে এবং অপরজনের (৫১) বাড়ি জেলা সদরের জাগীর ইউনিয়নে।
হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত এক সপ্তাহ ধরে সর্দি ও কাশিতে ভূগতেছিলেন ঘিওরের ওই নারী। গতকাল রোববার দুপুর দুইটার দিকে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে জেলা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনা হয়। এরপর চিকিৎসকের পরামর্শে তাঁকে হাসাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। পরে রাত ১১ টার দিকে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।
এ দিকে দুপুর পৌনে দুই টার দিকে জ্বর ও শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে জেলা সদরের ওই নারীকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন স্বজনেরা। এরপর হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নেওয়ার পর তাঁকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। এর দুই ঘন্টা পর বিকেলে চারটার ওই নারীর মৃত্যু হয়।
হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক আরশ্বাদ উল্লাহ বলেন, মৃত ওই দুই নারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এরপর তা পরীক্ষার জন্য ঢাকার সাভারে বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউটের ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার ফলাফল পাওয়ার পর কোভিড-১৯ এর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।
করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে এখন পর্যন্ত মানিকগঞ্জে কমপক্ষে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।
এ দিকে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, এ পর্যন্ত মানিকগঞ্জে ৫ হাজার ৩০৪ জনের করোনার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৪ হাজার ৭৮২ জনের পরীক্ষার ফলাফল পাওয়া গেছে। এ পর্যন্ত জেলায় কোভিড-১৯ এ মোট ৪৯৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে জেলা সদরে ১৪১ জন, সাটুরিয়ায় ৯৫ জন, সিঙ্গাইরে ৯৬ জন, ঘিওরে ৭৬ জন, হরিরামপুরে ৪০ জন, শিবালয়ে ৩১ জন এবং দৌলতপুরে ১৭ জন রয়েছেন।
জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব এবং সিভিল সার্জন আনোয়ারুল আমিন আখন্দ বলেন, সংক্রমিত ব্যক্তিদের মধ্যে ৩২৭ জন সুস্থ হয়েছেন। ২২ জন জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে এবং অন্যরা নিজ বাসায় আইসোলেশনে রয়েছেন। স্বাস্থ্যবিধি এবং সামাজিক দূরত্ব মেনে না চলায় অসচেতন ব্যক্তিরা করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন।

সম্প্রতি সংবাদ