ব্রেকিং নিউজ

সৈয়দপুর পৌরসভা আয়োজিত পৌরবৃত্তির সনদ ও চেক প্রদান 

editor ৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

শাহজাহান আলী মনন, নীলফামারী প্রতিনিধিঃ ২৪ জুলাই-২০২০
নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌরসভার ৪ বারের নির্বাচিত মেয়র এবং সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মোঃ আমজাদ হোসেন সরকার প্রবর্তিত পৌর মেধাবৃত্তি পরীক্ষায় কৃতকার্য শিক্ষার্থীদের বৃত্তির সনদ ও চেক প্রদান করা হয়েছে। গতকাল বিকাল ৪ টায় পৌরসভা চত্বরে উপস্থিত প্রতিষ্ঠান প্রধানদের হাতে নিজ নিজ শিক্ষার্থীদের বৃত্তির সনদ ও চেক তুলে দেয়া হয়। করোনা পরিস্থিতির কারনে অন্যান্যবারের মত এবার কোন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়নি। একেবারে অনানুষ্ঠানিকভাবে প্রধান শিক্ষকদের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের বাড়ী বাড়ী বৃত্তির চেক ও সনদ পৌঁছানোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে তুলশীরাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মমিনুর রহমানের হাতে বৃত্তির চেক ও সনদের খাম তুলে দিয়ে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন পৌর মেয়র অধ্যক্স মোঃ আমজাদ হোসেন সরকার। এসময় উপস্থিত ছিলেন পৌরসভার হিসাব রক্ষক মোঃ আবু তাহের, তথ্য কর্মকর্তা ও কথা সাহিত্যিক আকমল হোসেন সরকার প্রমুখ।
এবার পৌর এলাকার ১৭ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মোট ৯০ জন শিক্ষার্থী পৌরবৃত্তি পেয়েছে। কিন্ডারগার্টেন, প্রাথমিক ও জুনিয়র বৃত্তি এই তিন বিভাগে ৩০ জন করে মেধাবীকে এই বৃত্তি প্রদান করা হয়। ২০১৯ সালের পৌর বৃত্তি পরীক্ষায় প্রাথমিক (কিন্ডারগার্টেন) বিভাগে প্রথম স্থান অর্জন করেছে লায়ন্স স্কুলের সুবাত সায়েদা সাফা। এ প্রতিষ্ঠান থেকে আরও ৬ জন বৃত্তি পেয়েছে। দ্বিতীয় স্থান অর্জনকারী তাসনিম জান্নাত শেফাসহ সেন্ট জেরোজা জুনিয়র স্কুল থেকেও মোট ৭ জন বৃত্তি পেয়েছে। ক্যান্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের আবিদা অরিন তৃতীয় স্থান অর্জন করাসহ  ৬ জন এ বিভাগে বৃত্তি পেয়েছে। এছাড়া আল-ফারুক একাডেমির ৭ জন, ইন্টারন্যাশনাল ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের ২ জন ও সানফ্লাওয়ার স্কুলের ১ জন বৃত্তি পেয়েছে।
প্রাথমিক (সরকারি) বিভাগে প্রথম ও তৃতীয় স্থানসহ সর্বোচ্চ ১০ জন বৃত্তি পেয়েছে তুলশীরাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে। প্রথম হয়েছে সারা আলম ও তৃতীয় মোছাঃ নাবিলা আফলিন বৈশাখী। দ্বিতীয় হয়েছে রামকৃষ্ণ মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মোছাঃ সাদিয়া খাতুন। এ স্কুল থেকে আরও ৩ জন বৃত্তি পেয়েছে। ৬ জন শিক্ষার্থী বৃত্তি পেয়ে রহমত উল্লাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে। এছাড়া ২ জন করে বৃত্তি পেয়েছে নয়াটোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাঙ্গালীপুর নিজপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও নয়াবাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। ৪টি প্রতিষ্ঠানের ১ জন করে এ বিভাগে বৃত্তি পেয়েছে। সেগুলো হলো কয়ানিজপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ইত্তেহাদুল মুসলেমিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, নিয়ামতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ক্যান্ট বোর্ড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।
জুনিয়র বৃত্তি বিভাগে সর্বোচ্চ বৃত্তি অর্জন করেছে সৈয়দপুর সরকারি কারিগরি মহাবিদ্যালয়।  মেধা তালিকার চতুর্থ স্থান বাদে প্রথম স্থান থেকে দশম স্থান ও উনিশতম স্থান অধিকার করেছে এ প্রতিষ্ঠানের  ১০ জন মেধাবী। প্রথম হয়েছে মোঃ মাহমুদুল আমিন লিমন, দ্বিতীয় সাঈফ আহম্মেদ, তৃতীয় হয়েছে আল সামস্ আরেফিন। ৮ জন বৃত্তি পেয়ে প্রতিষ্ঠানগতভাবে দ্বিতীয় হয়েছে ক্যান্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ। এছাড়াও  লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজের ৫ জন, আল ফারুক একাডেমির ৩ জন ও সানফ্লাওয়ার স্কুলের ২ জন এ বিভাগে বৃত্তি পেয়েছে।
গত ২০১৯ সালের ৬ ডিসেম্বরে সৈয়দপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে পৌর বৃত্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।  (ছবি আছে)

সম্প্রতি সংবাদ