পাংশায় পৃথক দু’টি আত্মহত্যা

editor ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

মো. মোক্তার হোসেন ,  পাংশা (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি :১২ আগস্ট-২০২০

রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলার যশাই ইউপির পারভেল্লাবাড়ীয়া গ্রামের ইতি খাতুন (১৯) নামের কলেজ ছাত্রী এবং কলিমহর ইউপির সাজুরিয়া কুঠিপাড়া গ্রামের ছবি রানী (৪৫) নামের এক গৃহবধূ পৃথক ঘটনায় আত্মহত্যা করেছে। সোমবার ১০ আগস্ট সন্ধ্যায় ছবি রানী নিজ বাড়ীতে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করে। তার স্বামীর নাম অজয় কুমার দাস।
এছাড়া পারভেল্লাবড়ীয়া গ্রামের ফজলু মন্ডলের মেয়ে ইতি খাতুন সোমবার একইদিন দুপুর আড়াইটার দিকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। সকালে নিজ বাড়ীর ঘরের আড়ার সাথে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টাকালে গুরুতর আহত হলে তাকে প্রথমে পাংশা হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নেওয়া হয়। রেফার করলে সেখান থেকে তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়।
জানা যায়, কলিমহর ইউপির সাজুরিয়া কুঠিপাড়া গ্রামের অজয় কুমার দাসের স্ত্রী ছবি রানী দীর্ঘদিন ধরে নানা রোগে ভুগছিলেন। দেশের বিভিন্ন স্থানে তার চিকিৎসা চলে। রোগযন্ত্রনায় অধৈর্যের কারণে তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন বলে পরিবারের ধারণা। এ ব্যাপারে পাংশা মডেল থানায় ইউডি মামলা হলে পিএসআই মামুন অর রশিদ ঘটনাস্থলে গিয়ে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করেন। বিনা ময়না তদন্তে মরদেহ সৎকারের আবেদনের প্রেক্ষিতে তার ময়না তদন্ত করা হয়নি বলে জানা গেছে।
অপরদিকে, প্রেমঘটিত কারণে কলেজ ছাত্রী ইতি খাতুন আত্মহত্যা করেছে বলে গুঞ্জন উঠেছে। এ ব্যাপারে পাংশা মডেল থানায় ইউডি মামলা হয়েছে। মামলা নং ১৬, তারিখ ১০/০৮/২০২০। ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর কারণে ফরিদপুরের কতোয়ালী থানা পুলিশ নিহতের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে। ইউডি মামলাটি তদন্ত করছেন পাংশা মডেল থানার এসআই এনছের আলী।

 

সম্প্রতি সংবাদ