বালিয়াকান্দি প্রতিপক্ষের হামলায় আহত মাদরাসা কর্মচারী আহত

editor ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

 মোক্তার হোসেন, পাংশা (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি :১৪ আগস্ট-২০২০,শুক্রবার।

রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউপির মরাবিলা গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত মাদরাসা কর্মচারী মাহাবুব শাহিনকে (৪০) গত বৃহস্পতিবার রাতে পাংশা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মাহাবুব শাহিন অরফে মহবুল নারুয়া ইউপির পাটিকাবাড়ী দাখিল মাদরাসার অফিস সহায়ক।
জানা যায়, মরাবিলা গ্রামের ছানারুদ্দিন বিশ্বাস ও নাদের বিশ্বাস দু’পরিবারের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে সামাজিক বিরোধ চলছে। বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের লোকজন গত মঙ্গলবার রাতের যে কোনো সময় ছানারুদ্দিন বিশ্বাসের পুকুরে বিষ প্রয়োগে দেশীয় প্রজাতির প্রায় ৮মণ মাছ নিধন করে। বুধবার সকালে বাড়ির লোকজন ঘুম থেকে জেগে উঠে পুকুরে প্রচুর মরা মাছ ভেসে থাকতে দেখে। এ নিয়ে দু’পক্ষের লোকজনের মধ্যে রেষারেষি হলে বুধবার সকাল ১০টার দিকে প্রতিপক্ষের লোকজন ছানারুদ্দিন বিশ্বাসের সমর্থিত আফজাল মন্ডলের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ওয়ালকরা বসতঘর ভাংচুরের চেষ্টা করে ব্যর্থ হলে ফেরার পথে টিনের গোয়াল ঘরের বেড়া কুপিয়ে ক্ষতিসাধন করে তারা। এ সময় নাদের বিশ্বাসের সমর্থিত লোকজন ঠাল-সড়কি প্রদর্শন করে ত্রাসের সৃষ্টি করে। একপর্যায়ে ছানারুদ্দিন বিশ্বাসের সমর্থিত মাদরাসা কর্মচারী মাহাবুব শাহিনকে বাড়ির সামনে রাস্তার উপর পেয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তাকে জখম করে। তার মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কাটা-ফাটা ও ফুলা জখম হয়। ত্রাসের কারণে ভয়ে তাৎক্ষণিক ভাবে চিকিৎসার জন্য তাকে হাসপাতালে নিতে পারে নাই। স্থানীয় চিকিৎসকের দ্বারা তার প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। তার অবস্থার অবনতি দেখা দিলে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে তাকে পাংশা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বেড নং পু/৩৮, রেজিঃ নং ২০৩/৮। ছানারুদ্দিন বিশ্বাস এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, প্রতিপক্ষ নাদের বিশ্বাস গংদের ত্রাসের কারণে তিনিসহ তার পরিবারের লোকজন আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়টি প্রক্রিয়াধিন রয়েছে বলে জানান তিনি।

বার্তা প্রেরক ঃ
মো. মোক্তার হোসেন

সম্প্রতি সংবাদ