ব্রেকিং নিউজ

রাজবাড়ীতে চিকিৎসককে ধর্ষণ মামলায় ৩জনের ফাঁসি

editor ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ breaking সারাদেশ

আবুল হোসেন, রাজবাড়ী প্রতিনিধিঃ০২ সেপ্টেম্বর -২০২০,বুধবার।

রাজবাড়ীতে চিকিৎসককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের মামলায় ৩জন আসামীর সকলকে ফাসিঁর আদেশ দিয়েছেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের বিচারক শারমিন নিগার।

আদালতের কৌঁসুলী (পিপি) এ্যাডভোকেট উজির আলী সেখ বিষয়টি নিশ্চিত করেন ও তিনি আরো বলেন,২০০০সালের নারীওশিশু নির্যাতন দমন আইনে(সংশোধনী)২০০৩এর ৯(৩) ধারায় গণধর্ষণ মামলায় ৩ আসামীর ফাঁসির রায় দেয়া হয়েছে এবং এ সময় আসামীদেরকে অতিরিক্ত ১লক্ষ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। বুধবার বেলা সোয়া ১২টার দিকে সময় এ রায় দেন।
দন্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হলো-রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানখানাপুর ইউনিয়নের দত্ত পাড়া গ্রামের আরশাদ মোল্লার ছেলে মামুন মোল্লা(২০),সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়নের মজলিশপুর গ্রামের মৃত-মুন্নাফ সরদারের ছেলে হান্নান সরদার (৩০)ও একই এলাকার মৃত- আবুল মোল্লার ছেলে রানা মোল্লা(২৫)
উল্লেখ্যে- ২০১৮সালের ২৩শে ফেব্রæয়ারী ঢাকা থেকে দেশের বাড়ী গোপালগঞ্জের উদ্দেশে রওয়ানা হন এক নারী চিকিৎসক । সন্ধ্যার পর রাজবাড়ী সদর উপজেলার গোয়ালন্দ মোড়ে পেঁছালে,কোন বাস না পেয়ে সে অপেক্ষা করতে থাকেন, কিন্তু দীর্ঘসময় সে বাস না পেয়ে দাড়িঁয়ে থাকলে সন্ধ্যে ৭টার দিকে মামুন মোল্লা(২০)রানা মোল্লা (২৫)ইজিবাইক নিয়ে এসে তাকে বলেন এখানে দাড়িঁয়ে থাকলে কোন বাসই পাওয়া যাবেনা,ফরিদপুর গেলে বাস পাবেন বলে তাদের ইজিবাইকে তোলেন,যাওয়ার সময় পথের মধ্যে দাঁড়িয়ে থাকা হান্নান সরদার(৩০)কে ইজিবাইকে উঠালে তখন ইজিবাইকের মধ্যে সে তারসাথে অশালীন আচরণ করতে থাকেন। এক পর্যায়ে বসন্তপুর আখ সেন্টারের পাশে জলিল মোল্লার বাঁশের ঝাঁড়ে নিয়ে চিকিৎসককে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষন করা হয়। তখন সে তাদের ছেড়ে দেওয়ার অনুরোধ জানালে ভোরের দিকে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয় ,তখন মেয়েটি দৌঁড়ে পালিয়ে গিয়ে র‌্যাব ক্যাম্পকে জানায় ও ২৫শে ফেব্রæয়ারী রাজবাড়ী সদর থানায় অভিযোগ করেন।
আবুল হোসেন

সম্প্রতি সংবাদ