ব্রেকিং নিউজ

পাংশায় এলজিইডির এলসিএস শ্রমিকদের সঞ্চয়ী অর্থের চেক বিতরণ

editor ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

মোক্তার হোসেন, পাংশা (রাজবাড়ী) থেকে ঃ১৩ সেপ্টেম্বর-২০২০,রবিবার।

পাংশায় রবিবার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের অধীন অনুন্নয়ন বাজেটের মেরামত ও সংরক্ষণ খাতের আওতায় নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণ কাজের ২০১৭-২০২০ তিন বছর মেয়াদ শেষে ২০ জন এলসিএস মহিলা শ্রমিকের মাঝে তাদের সঞ্চয়ী অর্থের চেক বিতরণ করা হয়েছে। পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) বিপুল চন্দ্র দাসের সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদের হলরুমে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে পাংশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদ, পাংশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডা. এ.এফ.এম শফীউদ্দিন (পাতা) ও পাংশা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন বিশ্বাস বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এলজিইডির পাংশা উপজেলা প্রকৌশলী হাবিবুর রহমান। অনুষ্ঠানে সংস্থার সি.ও. নিজাম উদ্দিন, সাংবাদিক মোক্তার হোসেন, উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা ও স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেণি পেশার বিশিষ্ট ব্যক্তিগণ উপস্থিত ছিলেন।
অতিথবৃন্দ এলসিএস শ্রমিকদের সঞ্চয়ী অর্থ দ্বারা গরু-ছাগল ক্রয় করে সাংসারিক আয়বৃদ্ধির পরামর্শ দেন। বাহাদুরপুর, হাবাসপুর ও যশাই তিন ইউনিয়নের চুক্তিবদ্ধ এলসিএস শ্রমিকের চুক্তির মেয়াদ ৩বছর গত জুন মাসে শেষ হয়েছে। তাদের ভাতার ৪০% সংশ্লিষ্ট ব্যাংক একাউন্টে জমা ছিল। রবিবার আনুষ্ঠানিক ভাবে সুবিধাভোগী শ্রমিকদের মাঝে সঞ্চয়ী অর্থের চেক বিতরণ করা হয়।
জানা যায়, বাগমারা গ্রামের ছালেহার ৯০ হাজার ৯৯৯ টাকা, সেনগ্রামের মুসলিমা খাতুনের ৯৩ হাজার ৬০১ টাকা, রঘুনন্দপুরের মরিয়মের ৯১ হাজার ১২০ টাকা, গজারিয়ার মনোয়ারার ৯৩ হাজার ৬৯১ টাকা, পাটিকাবাড়ীর ফরিদা খাতুনের ৯৩ হাজার ৬০১ টাকা, একই গ্রামের সাবিনার ৯৩ হাজার ৬৯১ টাকা, চর আফড়ার সাগরী খাতুনের ৯৩ হাজার ৬৯১ টাকা, একই গ্রামের আনোয়ারার ৯৩ হাজার ৬০১ টাকা, হাবাসপুরের রাজিয়া খাতুনের ৯৩ হাজার ৫৯১ টাকা, একই গ্রামের সবুরার ৯৩ হাজার ৬৯১ টাকা, কাচারীপাড়ার নিলুফা ইয়াসমিনের ৯৩ হাজার ৬৯১ টাকা, সেনগ্রামের আনোয়ারার ৯৩ হাজার ৩৫৪ টাকা, কাঞ্চনপুরের সুফিয়া খাতুনের ৯২ হাজার ২ টাকা, যশাই গ্রামের হাসিনা বেগমের ৯৩ হাজার ৬৯১ টাকা, শাকদাহ গ্রামের লিপির ৯৩ হাজার ৬৯১ টাকা, চরপাড়া গ্রামের মিনু বেগমের ৯২ হাজার ১২১ টাকা, একই গ্রামের ছবিরনের ৯৩ হাজার ৫৩৮ টাকা, চৈতাগ্রামের শুকরণের ৯৩ হাজার ৫৩৮ টাকা, পার নারায়নপুর গ্রামের নমিতা রানীর ৯৩ হাজার ৪৫৪ টাকা ও সত্যজিতপুর গ্রামের মিতা খাতুনের ৯৩ হজার ১১৮ টাকার চেক প্রদান করা হয়।

সম্প্রতি সংবাদ