ব্রেকিং নিউজ

মানিকগঞ্জে পৃথক যৌতুক মামলায় তিনজনের কারাদন্ড

editor ৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ breaking সারাদেশ

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি:১৪ সেপ্টেম্বর-২০২০,সোমবার।
মানিকগঞ্জে পৃথক দুুটি যৌতুক ও নারী নির্যাতন মামলায় তিনজনের কারাদন্ড ও অর্থদন্ড হয়েছে। সোমবার মানিকগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আলী হোসাইন আসামীদের অনুপস্থিতিতে রায় দুটি ঘোষনা করেন। দন্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন দৌলতপুর উপজেলার বাঘুটিয়া গ্রামের জব্বার আলী ও তার স্ত্রী শিল্পী খাতুন এবং সাটুরিয়া উপজেলার হরগজ গ্রামের লুৎফর রহমান।
নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্রপক্ষে কৌসুলি একেএম নুরুল হুদা রুবেল জানান, দন্ড প্রাপ্ত আসামী জব্বার আলীর সাথে ২০১১ সালে দৌলতপুর উপজেলার জিয়নপুর গ্রামের পবন ঢালির মেয়ে লিপি বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর ১ লক্ষ টাকা যৌতুকের জন্য লিপিকে তার স্বামী জব্বার ও তার সতিন শারীরিক ভাবে নির্যাতন করে। পরে লিপি বেগম বাদি হয়ে ২০১৬ সালে মামলা করেন। ওই মামলায় আদালতে দোষী প্রমাণীত হওয়ায় বিচারক আসামী জব্বার আলীকে ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ড ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরো ২ মাসের কারাদন্ড প্রদান করেন। অপর আসামী লিল্পী খাতুনকে ১ বছরের সশ্রম কারাদন্ড ও ৩ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরো ১ মাসের কারাদন্ড প্রদান করেন।
অপর মামলায় সাটুরিয়া উপজেলার দেলুয়া গ্রামের এক সন্তানের জননী চয়না বেগম তার স্বামী একই উপজেলার হরগজ গ্রামের লুৎফর রহমানের বিরুদ্ধে ৫০ হাজার টাকা যৌতুকের দাবি ও নির্যাতনের অভিযোগে মামলা করেন। ওই মামলায় আদালতে দোষী প্রমানিত হওয়ার আসামী লুৎফর রহমানকে ৩ বছরের সশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরো ২ মাসের কারাদন্ড প্রদান করেন।

সম্প্রতি সংবাদ