ব্রেকিং নিউজ

নাগরপুরে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর উদ্বোধন

editor ৭ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ২০ সেপ্টেম্বর-২০২০,রবিবার।
তরুন ও আগামী প্রজন্মের কাছে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুর সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে টাঙ্গাইলের নাগরপুরে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর উদ্বোধন করা হয়েছে। রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলা প্রাঙ্গনে অবস্থিত স্বাধীনতা ভবনকে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর হিসেবে উদ্বোধন করেন স্থানীয় সাংসদ আহসানুল ইসলাম টিটু।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ ফয়েজুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সহকারি শিক্ষা কর্মকর্তা জিএম ফুয়াদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাংসদ টিটু বলেন, দেশে ৭৫ পরবর্তী সময়ে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস একটি গোষ্ঠি বিকৃত করে ফেলেছিল। সেই গোষ্ঠীই আবার মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস থেকে বঙ্গবন্ধুকে নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার অপচেষ্টায় লিপ্ত ছিল। কিন্তু এখন যুগ পাল্টিয়েছে নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানাতে ও মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর ভূমিকা তুলে ধরতে বর্তমান সরকারের পাশাপাশি প্রবীণ মুক্তিযোদ্ধারা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। তার আলোকে নাগরপুরে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ও মুক্তিযোদ্ধাদের সহযোগিতায় আজ থেকে নাগরপুরে যাত্রা শুরু করা এ মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর উপজেলার তরুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার সুজায়েত হোসেন বলেন, আমরা উপজেলার মুক্তিযোদ্ধারা দীর্ঘদিন যাবৎ চিন্তা করছিলাম কিভাবে আমরা আমাদের নতুন প্রজন্মের কাছে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে পারি। আজ এখানে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর স্থাপনের মধ্য দিয়ে আমাদের দুশ্চিন্তা কিছুটা লাঘব হয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি এ জাদুঘরের মাধ্যমে আমাদের নতুন প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে পারবে ও বঙ্গবন্ধুকে জানতে পারবে।
অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো.হুমায়ুন কবীর, বীরমুক্তিযোদ্ধা রিয়াজ উদ্দিন তালুকদার, মো.ফজলুল হক, এডভোকেট দাউদুল ইসলাম দাউদ, শম্ভুনাথ সাহা, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কমান্ডের উপদেষ্টা খন্দকার আছাব মাহমুদ প্রমূখ।
আটটি গ্যালারিতে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের স্থিরচিত্র নিয়ে আজ থেকে যাত্রা শুরু করল নাগরপুরের মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরটি।
রামকৃষ্ণ সাহা রামা

সম্প্রতি সংবাদ