ব্রেকিং নিউজ

সৈয়দপুরে উপজেলা সভাপতির বহিস্ককারের দাবীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগের মানববন্ধন

editor ৭ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

শাহজাহান আলী মনন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ২৭ সেপ্টেম্বর-২০২০
নীলফামারীর সৈয়দপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগ উপজেলা কমিটির একাংশ মানবন্ধন ও প্রতিবাদ সভা করেছে। বিএনপি কর্মী বাদলকে কামারপুকুর ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে বহিস্কারের দাবিতে তারা ওই মানববন্ধন করে। এতে একাত্বতা ঘোষনা করে উপজেলা যুবলীগ ও ছাত্র লীগ।
২৬ সেপ্টেম্বর শনিবার বেলা ৪ টায় স্থানীয় প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন চলে প্রায় ঘন্টাব্যাপী। মানববন্ধন শেষে এক প্রতিবাদসভা অনুষ্ঠিত হয়।
উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক একরামুল হক মানিকের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য বলেন, আওয়ামী যুবলীগ উপজেলা শাখার যুগ্ম আহবায়ক মোস্তফা ফিরোজ, আসাদুল ইসলাম আসাদ, পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিফাত সরকার।
উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি সরকার মারুফ ইসলাম রকি, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বিদ্যুৎ আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহিন প্রামানিক, রাজিব রায়, দপ্তর সম্পাদক খালিদ মিনহাজ বাবরসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ।
বক্তারা বলেন, ফেসবুকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে কটুক্তিকারী গামছা বাদলকে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। বক্তাদের অভিযোগ অর্থের বিনিময়ে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আজম আলী সরকার জামায়াত ও বিএনপির দালাল গামছা বাদলকে ওই পদ দিয়েছেন।
তারা অবিলম্বে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আজম আলী সরকারসহ বাদলের বহিস্কার দাবি করেন। অন্যথায় বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।
প্রতিবাদ সভা শেষে বিক্ষোভ মিছিলসহ শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। এ সময় তারা আজম আলী ও গামছা বাদলের বহিষ্কারের দাবীতে শ্লোগান দিতে থাকে।
উল্লেখ্য, ইতোপূর্বে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি আজম আলী সরকারের বিরুদ্ধে করোনার প্রভাবে লকডাউন চলাকালে বিপর্যস্ত হতদরিদ্রদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ বিতরনের স্লিপ ১শ’ টাকা করে বিক্রির অভিযোগ উঠেছিল। সেসময়ও আজম আলীর বহিষ্কার ও বিচারের দাবীতে মানব বন্ধন কর্মসূচি পালন করেছিল টাকা দিয়ে ত্রানের স্লিপ কিনতে বাধ্য হওয়া হতদরিদ্ররাসহ খাতামধুপুর ইউনিয়নবাসী। পরে এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল। যা পরবর্তীতে রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে তদন্ত রিপোর্ট নিজের পক্ষে নিয়েছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া আজম আলী দলীয় প্রভাবে সরকারী বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের দায়িত্ব নিয়ে কাজ না করেই অর্থ তসরুপ করেছেন বলেও ব্যাপক অভিযোগ রয়েছে। যা নিরপেক্ষভাবে তদন্ত করারও দাবি উঠেছে। কারন সঠিকভাবে তদন্ত হলে আজম আলীর বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগগুলোর সত্যতা বেড়িয়ে আসবে

সম্প্রতি সংবাদ