পাংশায় ফুড গোডাউনে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর ডিও’র চাল বিতরণ কার্যক্রম পরিদর্শনে খাদ্য নিয়ন্ত্রক

editor ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

 মোক্তার হোসেন, পাংশা (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি :০৪ অক্টোবর-২০২০,রবিবার।

রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলা সরকারী ফুড গোডাউনে রবিবার বিকেলে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর ডিলারদের অক্টোবর মাসের ডিও’র চাল বিতরণ কার্যক্রম পরিদর্শন করেন উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক এ.কে.এম শাহনেওয়াজ।
জানা যায়, খাদ্য অধিদপ্তর পরিচালিত খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর সেপ্টেম্বর-নভেম্বর-২০২০ প্রান্তিকের আওতায় সরকার নির্ধারিত মূল্যে খাদ্যবান্ধব কার্ডধারীদের মাঝে চাল বিতরণ কার্যক্রম চলছে। রবিবার থেকে ডিলারদের অক্টোবর মাসের ডিও প্রদান শুরু হয়েছে। রবিবার প্রথমদিনে ১৪জন ডিলারকে ডিও প্রদান করা হয়। ডিও হাতে পেয়েই ডিলাররা সরকারী ফুড গোডাউন থেকে ডিও’র চাল গ্রহণ করছেন।
খাদ্য পরিদর্শক শ্যামসুন্দর সাহা জানান, রবিবার থেকে নির্ধারিত ১০টাকা মূল্যের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর ডিলারদের অক্টোবর মাসের ডিও প্রদান শুরু হয়েছে। রবিবার প্রথমদিনে ১৪জন ডিলারকে ডিও প্রদান করা হয়। আগামী মঙ্গলবার থেকে ডিলাররা নিজনিজ দোকানে তালিকাভুক্ত সুবিধাভোগিদের মাঝে নির্ধারিত ১০টাকা কেজি দরে ৩০ কেজি করে চাল বিক্রি করবে।
এদিকে, রবিবার বিকেলে পাংশা উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক এ.কে.এম শাহনেওয়াজ সরকারী ফুড গোডাউন থেকে ডিলারদের সঠিক মাপে ডিও’র চাল বিতরণ কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। তিনি বেশ কিছু সময় সেখানে অবস্থান করে ডিজিটাল ওয়েটমেশিনে সঠিক ওজনে ডিলারদের চাল বিতরণ পর্যবেক্ষণ করেন। এ সময় ওসি-এলএসডি মোহাম্মদ ইব্রাহীম আদম, রাইস মিলস মালিক সমিতির সভাপতি দিলীপ কুমার, মৌরাটের ডিলার কেছমত আলী শেখ ও মজিবর রহমান, মাছপাড়ার ডিলার তপন কুমারসহ কয়েকজন ডিলার উপস্থিত ছিলেন। তারা ফুড গোডাউন থেকে ডিজিটাল ওয়েটমেশিনে ওজন দিয়ে চাল বিতরণ কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করেন। খাদ্য নিয়ন্ত্রক এ.কে.এম শাহনেওয়াজ ও ওসি-এলএসডি মোহাম্মদ ইব্রাহীম আদম সরকারী ফুড গোডাউন থেকে সঠিক মাপে ডিও’র চাল বুঝে নিতে ডিলারদের প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা প্রদান করেন।
প্রসঙ্গত ঃ পাংশা উপজেলায় খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীতে ৩৩ জন ডিলার ও ১৭ হাজার ১০জন সুবিধাভোগী রয়েছেন।

সম্প্রতি সংবাদ