ব্রহ্মপুত্র নদে স্কুল ছাত্রের লাশদুই দিন পর উদ্ধার

editor ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

হাবিবুর রহমান, ঈশ^রগঞ্জ ময়মনসিংহ থেকে :১১ আক্টোবর-২০২০
ময়মনসিংহের ঈশ^রগঞ্জের উচাখিলা ইউনিয়নের মরিচারচর উত্তরপাড়া গ্রামের প্রবাসী ছেলে ৮ম শ্রেণিতে পড়–য়া স্কুল ছাত্রকে মোবাইল ফোনে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে হত্যার পর লাশ নদীতে ফেলে দেওয়ার দু’দিন পর বাড়ির পাশে ব্রহ্মপুত্র নদীতে পাওয়া যায়। রবিবার ভোরে খবর পয়ে ঘটনা স্থল ব্রহ্মপুত্র নদীর তীরে পানিতে পরে থাকা ভাসমান লাশটি দেখা যায়।
জানা যায়, মরিচার চর উত্তর পাড়া গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী মঞ্জুরুল হকের ছেলে জারভেজ মিয়া মরিচারচর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্র। পারভেজের মা রোজিনা বলেন, শুক্রবার রাত ৮টার দিকে পারভেজকে তার মায়ের ফোনে এবং পরে পারভেজের মোবাইলে কল দিয়ে তাকে ডেকে নিয়ে যায়। পারভেজকে যেতে মানা করলেও মাকে না জানিয়ে দোকানে যাওয়ার কথা বলে তার ও মায়ের মোবাইলটিও নিয়ে ঘর থেকে বেরিয়ে যায়।
এরপর থেকে পরিবারের লোকজন পারভেজের কোন সন্ধান পায়নি। খোঁজাখুাঁজির পরও সন্ধান না পাওয়ায় পরিবারের লোকজন উৎকন্ঠায় ভোগছিল। রবিবার ভোরে স্থানীয় এলাকাবাসী নিখোঁজ পারভেজের বাড়ি থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে মরিচারচর গ্রামে ব্রহ্মপুত্র নদের পানিতে পড়ে থাকা একটি তাল গাছে লাশ আটকে থাকতে দেখতে পাওয়া যায়। পরে পরিবারের লোকজন লাশটি দেখে পারভেজের লাশ বলে সনাক্ত করেন।
নদীতে লাশ পড়ে থাকার ঘটনাটি ৯৯৯ জানানোর পর ঈশ^রগঞ্জ থানার ওসি পুলিশ নিয়ে নদী থেকে লাশটি উদ্ধার করার পর পরিবারের লোকজন নিহত স্কুল ছাত্র পারভেজের বাড়িতে নিয়ে গেলে এলাকার হাজার হাজার মানুষ অশ্রæ স্বজল নয়নে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে। এলাকাবাসী পারভেজকে নির্মম ভাবে যারা হত্যা করেছে তাদের ফাঁসির দাবি জানান। নিহত পারভেজের গলায় চুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে।
এ বিষয়ে ঈশ^রগঞ্জ থানার ওসি মোখলেছুর রহমান আকন্দ জানান, নিহতের লাশটি উদ্ধার করে সুরতহাল করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হবে।##

সম্প্রতি সংবাদ