পাংশায় যুদ্ধাহত বীরমুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলীর রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন

editor ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

মোক্তার হোসেন, পাংশা (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি :১৪ নভেম্বর-২০২০

একাত্তরের মহান স্বাধীনতাযুদ্ধের যুদ্ধাহত বীরমুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলীর শনিবার ১৪ নভেম্বর দুপুরে পাংশার চরঝিকড়ী প্রামানিকপাড়া জামে মসজিদের পাশে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন হয়েছে। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রাজধানী ঢাকার মুক্তিযোদ্ধা টাওয়ারে তার নিজ বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। পঙ্গু হাসপাতালের অবসরপ্রাপ্ত রিসিপশনিস্ট ছিলেন তিনি। তার পৈত্রিক বাড়ী পাংশার উপজেলার হাবাসপুর ইউপির চরঝিকড়ী প্রামানিক পাড়ায়। পাংশা শহরের হাসপাতাল সড়কে যুদ্ধাহত বীরমুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলীর নিজস্ব বাড়ী রয়েছে।
জানা যায়, শুক্রবার রাতে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালসহ তিনটি স্থানে তার জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। শনিবার সকালে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এ্যাম্বুলেন্সযোগে তার মৃতদেহ পাংশা হাসপাতাল সড়কের নিজ বাড়িতে নেওয়া হয়। শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার সময় পাংশা উপজেলা শিক্ষা অফিস চত্বরে গার্ড অব অনার এবং চতুর্থবারেরমত জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। রাজবাড়ী পুলিশ লাইন্সের এএসআই তোফাজ্জেল হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশের চৌকসদল গার্ড অব অনার প্রদান করে। এ সময় প্রশাসনিক কর্মকর্তা, মুক্তিযোদ্ধা নেতৃবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার বিশিষ্ট ব্যক্তিরা বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলীর কফিনে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করে।
রাজবাড়ী-২ আসনের সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য ও পাংশা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মতিন মিয়া, রাজবাড়ী জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার আমজাদ হোসেন মন্টু, পাংশা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার চাঁদ আলী খান, পাংশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অবসরপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা.এ.এফ.এম শফীউদ্দিন (পাতা), পাংশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি কালুখালী সরকারী কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মুক্তিযোদ্ধা এ.কে.এম জয়নাল আবেদীন, পাংশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা ওসমান গনী, হোগলাডাঙ্গী মোহাম্মাদিয়া ইসলামিয়া কামিল মডেল মাদরাসার অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মীর আব্দুল বাতেন, মুক্তিযোদ্ধা মোস্তফা আনোয়ার, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কুদ্দুস, পাংশা উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিসের অডিটর নাজমুল হাসান, কালুখালী উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিসের অডিটর আনসার আলী, পাংশা পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আব্দুল আলীম মুন্সী, ডিডিসি লিমিটেডের ঢাকা অফিসের ম্যানেজার সফিউর রহমানসহ মুক্তিযোদ্ধা নেতৃবৃন্দ ও স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকজন পাংশা উপজেলা শিক্ষা অফিস চত্বরে অনুষ্ঠিত জানাজার নামাজে অংশগ্রহণ করেন।
এরপর দুপুরে পাংশা উপজেলার হাবাসপুর ইউপির চরঝিকড়ী প্রামানিকপাড়া জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে ৫মবারেরমত জানাজার নামাজ শেষে মসজিদের পাশে তার দাফন সম্পন্ন হয়। চরঝিকড়ী প্রামানিকপাড়া জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে শেষ জানাজার নামাজে ইমামতি করেন মাওলানা শহিদুল্লাহ বরকতি।
তিনি মৃত্যুকালে স্ত্রী, দুই পুত্র ও তিন কন্যা সন্তানসহ বহু আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহি রেখে গেছেন। যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলীর পুত্র শরিফুল ইসলাম বিপ্লব ও আবুল কালাম আজাদ পিতার বিদেহি আত্মার মাগফিরাতের জন্য সবার কাছে দোয়া কামনা করেছেন।

সম্প্রতি সংবাদ