ব্রেকিং নিউজ

নওগাঁর আত্রাইয়ে লেপ-তোশক তৈরির ধুম।

editor ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

একেএম কামাল উদ্দিন টগর ,নওগাঁ প্রতিনিধিঃ-১৮ নভেম্বর-২০২০

নওগাঁর আত্রাইয়ে শতের আগমনীতে ধুম পড়েছে লেপ-তোশক তৈরির। লেপ- তোশকের কারিগররা এখন ব্যস্ত সময় অতিবাহিত করছেন।কিছুদিন পরই জেঁকে বসবে শীত। এবার কার্তিতের শীতের আমেজ আগেই টের পাওয়ায় জন সাধারণ ভিড় জমাতে শুরু করেছে লেপ-তোশকের দোকানে।তুলা,লেপের কাপড় ফোম এবং মজুরি গত বছরে তুলনায় এবার বেশি বলে জানিয়েছে বিক্রেতারা। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় নওগাঁর আত্রাই বাজারের দোকান গুলোতে লেপ-তোশকের ভিড় লক্ষণীয়। এসব দোকানে দিন দিন বেড়েই চলেছে লেপ-তোশক ক্রেতাদের ভিড়। পাশাপাশি ব্যস্ততা বেড়েছে লেপতোশক তৈরির প্রতিটি দোকানে এখন 15-20টি লেপ-তোশক তৈরি হচ্ছে। এদিকে শীতবস্ত্র বিক্রির দোকানেও ভিড় ও কেনাকাটা জমে উঠেতে শুরু করেছে।আত্রাই বাজারের জনতাবেডিং ষ্টোরের স্বত্বাধিকারী মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, আমি 20-25বছর ধরে তোশক তৈরি ও বিক্রয় করে আসছি।লেপ তোশক তৈরি করে আজ আমি স্ববলম্বী হযেছি। লেত তোশক তৈরি করে আমার ছেরে মেয়ের লেখা পড়া খরচ মিটিয়ে সংসারের হাল ধরে আছি এ ব্যবসা থেকেই।ইচ্ছা করলেই এ ব্যবসাকে চেড়ে দিতে পারিনা। প্রতিদিন 15 থেকে বিশটি লেপ তৈরি হয়ে থাকে। 4-5 হাত মাপের তৈরি লেপ 900 থেকে1650 পর্যন্ত বিক্রি হয়ে থাকে।লেপ তোশক তৈরির কারিগর মোঃখোকন বলেন,আমি দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে লেপ তোশকের কারিগর হিসেবে কাজ করছি। আমার দাদা,বাবার সূত্র ধরেই আমিও আজ ও দুই দশক ধরে এ পেশার সাথে জড়িত রয়েছি। আরেক মহিলা কারিগর তোমা খাতুন বলেন লেখা পড়ার পাশা পাশি আমরা বাড়িতেই পরিবারের সকলে মিলে রাত্রি বারটা পর্যন্ত শীত মৌসুমে কাজ করতে হয়।একটা সময়ে হাড় কাঁপুনি শতেও লেপ তোশকের দোকানে ভিড় লক্ষণীয় ছিলো।তবে শীতের প্রকোট বাড়ার সাথে সা্থেই লেপ তৈরির ধুম পড়বে বলে জানান।#

 

সম্প্রতি সংবাদ