ব্রেকিং নিউজ

দীর্ঘ ৫৫ বছর পর হলদিবাড়ি-চিলাহাটি রেল লাইনে ট্রেন চলাচলের উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদী

editor ১৩ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ সারাদেশ

 নীলফামারী প্রতিনিধি:১৭ ডিসেম্বর-২০২০,বৃহস্পতিবার।
দীর্ঘ ৫৫ বছর পর বহুল প্রত্যাশিত নীলফামারীর চিলাহাটি ও ভারতের হলদিবাড়ি রেল পথে পুনরায় ট্রেন চলাচলের উদ্বোধন করলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।  বৃহস্পতিবার (১৭ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী এ রেলপথ দিয়ে পুনঃরায় ট্রেন চলাচলের উদ্বোধন করনে। দুপুর এক টার দিকে চিলাহাটি স্টেশন হতে ৩২টি পন্যবাহি বগি নিয়ে ভারতের হলদিবাড়ি স্টেশনের উদ্দ্যেশে একটি ট্রেন রওনা হয়। চিলাহাটি হতে ভারতের হলদিবাড়ি ট্রেন উদ্বোধনের সময় দশ হাজারের মতো উৎসুক মানুষ ভির জমায়। দীর্ঘ দিনের দাবী পূরণ হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানায় গোটা জেলার মানুষ।  চিলাহাটি রেলস্টেশনের পাশে স্থানীয় অনুষ্ঠানে রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন, বানিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সি, সংসদ সদস্য আবতাফ উদ্দিন সরকার, আহসান আদেলুর রহমান, রাবেয়া আলিম, রেলওয়ে মন্ত্রনালয়ের সচিব সেলিম রেজা, জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী, পুলিশ সুপার মো: মোখলেছুর রহমান বিপিএম, রেলের মহাব্যবস্থাপক মিহিরকান্তি গুহ, প্রকল্প পরিচালক আব্দুর রহিম, ডোমার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিনা শবনম, থানার অফিসার ইনচার্জ মো: মোস্তাফিজুর রহমান প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।   দীর্ঘ ৫৫ বছর পর চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রেললাইন দিয়ে পুনরায় ট্রেন চলাচলে খুশির আমেজ বইছে চিলাহাটিসহ গোটা জেলায়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজনকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বিভিন্ন স্থানে তোরণ, গেট ও ব্যানার টাঙিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছে সব শ্রেনীপেশার মানুষ। গোটা জেলা জুড়ে স্বাজ স্বাজ রব দেখা দিয়েছে।  রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন ও বানিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সি জানান, পন্যবাহী টেন চলাচলেল মাধ্যমে এ পথ দিয়ে ট্রেন চলাচলের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আগামী ২৬ মার্চ যাত্রীবাহী ট্রেন উদ্বোধন করা হবে বলে মন্ত্রীদ্বয় জানান।  রেলওয়ে সূত্রমতে, ১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্ট পাক-ভারত বিভক্তের পরও এপথে রেল চলাচল চালু ছিল। সে সময়ে এ পথে দুই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে চলাচল করতো যাত্রি ও মালবাহি ট্রেন। ১৯৬৫ সালে পাক-ভারত যুদ্ধের পর বন্ধ হয় দুই দেশের মধ্যে রেল চলাচল। পরিত্যক্ত রেলপথটি চালুর উদ্যোগ নেয় শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদী সরকার। রেলপথটি চালু করতে ৮০ কোটি ১৬ লাখ ৯৪ হাজার টাকা ব্যয়ে একটি প্রকল্প হাতে নেয় বর্তমান সরকার। প্রকল্পটির মধ্যে রয়েছে চিলাহাটি রেলস্টেশন থেকে সীমান্ত পর্যন্ত ৬ দশমিক ৭২৪ কিলোমিটার ব্রডগেজ রেলপথ ও দুই দশমিক ৩৬ কিলোমিটার লুপলাইন নির্মানসহ অন্যান্য অবকাঠামো। কাজ ইতোমধ্যে সমাপ্ত হয়েছে। গত বছরের ২১ সেপ্টেম্বর চিলাহাটি রেল স্টেশন চত্বরে প্রকল্পটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন রেলপথমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন।

সম্প্রতি সংবাদ