ব্রেকিং নিউজ

বিমানের নতুন প্লেন ‘ধ্রুবতারা’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

editor ১০ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ breaking slider-top প্রধান খবর

কালের কাগজ ডেস্ক:২৭ ডিসেম্বর, ২০২০
জাতীয় পতাকাবাহী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের নতুন প্লেন ‘ধ্রুবতারা’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ নিয়ে বিমানের বহরে উড়োজাহাজের সংখ্যা হলো ১৯টি। বাংলাদেশ ও কানাডা সরকারের মধ্যে জি-টু-জি ভিত্তিতে কেনা তিনটি ড্যাশ ৮-৪০০ উড়োজাহাজের মধ্যে প্রথমটি হচ্ছে ‘ধ্রুবতারা’। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে এই উড়োজাহাজের নাম রেখেছেন।

রোববার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই উড়োজাহাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ভিভিআইপি টার্মিনালে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটনমন্ত্রী মাহাবুব আলীসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন। গণভবন প্রান্তে অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব আহমদ কায়কাউস।

কানাডার প্রখ্যাত উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ডি হ্যাভিল্যান্ড নির্মিত ৭৪ আসনের ড্যাশ ৮-৪০০ উড়োজাহাজটি পরিবেশবান্ধব এবং অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা সমৃদ্ধ। নতুন উড়োজাহাজটি সংযোজিত হওয়ায় বিমান বহরে মোট উড়োজাহাজের সংখ্যা হলো ১৯টি। তার মধ্যে চারটি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর, চারটি বোয়িং ৭৮৭-৮, দুটি বোয়িং ৭৮৭-৯, ছয়টি বোয়িং ৭৩৭ এবং তিনটি ড্যাশ ৮-৪০০ উড়োজাহাজ।

ড্যাশ-৮ দিয়ে অভ্যন্তরীণ রুটের ফ্লাইট পরিচালনার পরিকল্পনা রয়েছে বিমান বাংলাদেশের। তিন ঘণ্টার মধ্যে যে গন্তব্যগুলোতে পৌঁছানো যায়, সেখানে বিমান ড্যাশ-৮ দিয়ে ফ্লাইট চালাবে বিমান। হেপা ফিল্টার প্রযুক্তি মাত্র চার মিনিটেই উড়োজাহাজের ভেতরের বাতাস ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাসসহ অন্যান্য জীবাণু থেকে মুক্ত হবে। এছাড়াও এ উড়োজাহাজে দুই আসনের মধ্যবর্তী বড় ফাঁকা জায়গা, এল ই ডি লাইটিং এবং প্রশস্ত জানালা থাকায় ভ্রমণ হবে আরামদায়ক ও আনন্দময়।

একই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী দেশের বিভিন্ন স্থানে নবনির্মিত ২০টি ফায়ার স্টেশন, জেলা সদরে নবনির্মিত ৬টি আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস, কেরানীগন্জে মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগার এবং একটি এলপিজি স্টেশন’র উদ্বোধন ঘোষণা করেন। গণভবন প্রান্তসহ ভিআইপি লাউন্জ, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর এবং ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তর, কাজী আলাউদ্দীন রোড যুক্ত ছিল।

সম্প্রতি সংবাদ