মানিকগঞ্জে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করার অভিযোগ

editor ২রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ breaking সারাদেশ

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি ঃ ৬ জানুয়ারী -২০২১,বুধবার।
মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার আটিগ্রাম ইউনিয়নের রাজনগর গ্রামের শনিরাম মালো (৩৩) নামে এক যুবকের কুপিয়ে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সে মৃত হরি মালোর ছেলে। স্বজনদের দাবী নিহত শনিরাম মালো কোন শত্রু ছিলো না। এদিকে পুলিশ শনিরামের বাড়ীর থেকে অর্ধ কিলো মিটার দুরের একটি তার লাশ উদ্ধার করেছে। পুলিশ জানিয়েছে এটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড।

নিহতের কাকাতো ভাই মনোরঞ্জন মালো জানিয়েছেন, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে শনিরাম মালোর সাথে তার সর্বশেষ স্থানীয় একটি চায়ের দোকানে দেখা হয়।পরে তিনি সকালে জানতে পারেন তার ভাইয়ের লাশ বাড়ীর অদুরের একটি কৃষি জমির উপর পাওয়া যায়। তার ভাইয়ের দু হাতের কব্জি ও মাথায় পেছন দিকে কোপের গভীর ক্ষত রয়েছে। পিঠেও কোপের আঘাত দেখা গেছে।
এ বিষয়ে আটিগ্রাম ইউনিয়নের স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার জয়নাল আবেদীন ও রাহিমা মেম্বার বলেন, মানিকগঞ্জ জেলা শহরের একটি মিষ্টি তৈরির দোকানে শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো শনিরাম মালো। মঙ্গলবার রাত বাড়ী থেকে কাউকে না বলে বের হয়ে আর বাড়ী ফিরে আসেনি। পরে সকালে বাড়ির পাশের একটি কৃষি জমিতে তার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পরিবারের স্বজনদেরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার মোহাম্মদ এরফান আনছারী জানান, লাশের শরীরে বিভিন্ন অঙ্গে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের ক্ষত রয়েছে। দু হাতের কব্জি, মাথার পেছনে ও পিঠে কোপের আঘাত রয়েছে। মর্গে আনা লাশের ময়না তদন্তের প্রস্তুতি চলছে
মানিকগঞ্জ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ভাস্কর সাহা কুপিয়ে হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শনিরাম মালোকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে।তবে খুনের মোটিভ কিংবা ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে এখনো সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছে।নিহতের পরিবারে পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। তদন্ত করে দোষিদের দ্রæত আইনের আওতায় আনা হবে। বলে তিনি জানান।

সম্প্রতি সংবাদ