ব্রেকিং নিউজ

মা-মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে ধর্ষকের আমৃত্যু যাবজ্জীবন

editor ১১ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ breaking সারাদেশ

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি ঃ ১২ জানুয়ারী-২০২১,মঙ্গলবার।
জুসের সাথে নেশাজাতীয় দ্রব্য পান করিয়ে মা-মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে আওলাদ হোসেন (৪২) নামের এক ব্যক্তিকে আমৃত্যু যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে ৫ বছরের সশ্রম কারাদন্ডাদেশ দিয়েছেন মানিকগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক। মঙ্গলবার মানিকগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আলী হোসাইন আসামীর অনুপস্থিতিতে এই রায় ঘোষনা করেন। দন্ডপ্রাপ্ত আওলাদ হোসেন শিবালয় উপজেলার উত্তর খানপুর গ্রামের আকালী মিয়ার ছেলে।

মানিকগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের সরকারি কৌশলী একেএম নূরুল হুদা রুবেল জানান, ২০১১ সালের ২৭ জুন রাতে উত্তর খানপুর গ্রামের এক দিন মুজুরের স্ত্রী ও মেয়েকে কৌশলে জুস পান করায় আসামী আওলাদ হোসেন। আসামীর দেওয়া ওই জুস পান করার পর মা-মেয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। এর পর মা-মেয়েকে ধর্ষণ করে ঘরে থাকা দেড় ভরি স্বর্ণ ও নগদ ১০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় আসামী আওলাদ।
পরদিন সকালে বিবস্ত্র অবস্থায় মা-মেয়েকে অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় স্থানীয়রা। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় জ্ঞান ফেরার পর স্বামীর নিকট পুরো ঘটনা বর্ননা করেন তার স্ত্রী। পরে আওলাদ হোসেন এবং তার দুই সহযোগী আয়নাল ও আমজাদ হোসেনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেন ওই দিনমুজুর।
মামলায় ১০ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আসামী আয়নাল ও আমজাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদেরকে বেকসুর খালাস দেন এবং আসামী আওলাদ হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে আমৃত্যু যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে ৫ বছরের সশ্রম কারাদন্ডাদেশ দেন বিচারক।
০১৭১৭১৮২৪৪৪
মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি

সম্প্রতি সংবাদ