ব্রেকিং নিউজ

ঈশ্বরগঞ্জে গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার গৃহকর্তা আটক

editor ২৭শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ breaking সারাদেশ

হাবিবুর রহমান, প্রতিনিধি ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) :১৭ জানুয়ারয়-২০২১,রবিবার।
ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে গৃহকর্মীর লাশ নিয়ে গৃহকর্ত্রী বাড়িতে আসলে পরিবারের লোকজন হত্যার অভিযোগ তুলে থানায় খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার এবং গৃহকর্ত্রীকে আটক করে থানার নিয়ে আসে।
জানা যায়, উপজেলার সরিষা ইউনিয়নের মারুয়াখালী গ্রামের তুতা মিয়ার কন্যা তানিয়া আক্তার (১৮) কে চার মাস পূর্বে একই এলাকার কাঠ মেস্তুরী আ: কাদিরের মাধ্যমে ঢাকার বনানী এলাকায় ৬হাজার টাকা মাসিক বেতনে গৃহকর্মীর কাজ দেয়।
ইতোমধ্যে বিকাশের মাধ্যমে গৃহকর্ত্রী তানিয়ার বাবাকে ৫হাজার টাকা দেয়। শুক্রবার বিকেলে গৃহকর্ত্রী ডা. বদরুন্নাহার, তানিয়ার বাবাকে মোবাইল ফোনে জানায় তার মেয়ে অসুস্থ্য। পরে রাত প্রায় ১১টার দিকে তানিয়ার লাশ নিয়ে বাড়িতে ফেঁরে গৃহকর্ত্রী। তানিয়ার মৃত্যু নিয়ে সন্দেহ হলে বাবা-মাসহ স্থানীয়রা গৃহকর্ত্রীকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ শনিবার বিকেলে লাশ উদ্ধার ও গৃহকর্ত্রীকে আটক করে।
ঈশ্বরগঞ্জ থানায় গৃহকর্ত্রী ডা. বদরুন্নাহার জানান, তার বাড়ি চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জের হৃদকালিন্দিয়া এলাকায় বাবা হারুর অর রশিদ। স্বামীর বাড়ি নারায়নগঞ্জ, চার বছর পূর্বে পারিবারিক কলহে স্বামী তাকে তালাক দেয়। তার এক পুত্র দুই কন্যা তাদের বাবার কাছে রয়েছে। তিনি আরো জানান, তানিয়া ডাইরিয়ায় আক্রান্ত হলে সখিপুর থেকে টাঙ্গাইল হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যায়।
তানিয়ার বাবা তুতা মিয়া জানান, তার মেয়ের শরীরে বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। নাক মুখ দিয়ে রক্ত লেগে আছে। তানিয়ার মা সালেহা আক্তার লাশের পাশে বিলাপ করে মেয়ের হত্যাকারীর বিচার দাবী করছেন।
ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল কাদের মিয়া জানান, গৃহকর্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় রাখা হয়েছে। লাশটি ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হবে।##

 

সম্প্রতি সংবাদ