ব্রেকিং নিউজ

আ.লীগ নেত্রী খুন, বটি ও চাকুসহ স্বামী গ্রেপ্তার

editor ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ breaking জাতীয়

নিজস্ব প্রতিবেদক:২৪এপ্রিল-২০২১,শনিবার।

ধারালো বটি ও ফল কাটার চাকু দিয়ে স্ত্রী উমামা বেগম কনককে হত্যার ঘটনায় স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার নাম ওমর ফারুক।

শনিবার রাত আটটার দিকে রাজধানীর পল্লবী এলাকা থেকে হত্যায় ব্যবহৃত বটি ও চাকুসহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। কনকেকে কোপানোর পর ফারুক বাসাতেই ছিলেন।

নিহত কনক আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ছিলেন। পারিবারিক বিরোধের কারণে গতরাতে তার স্বামী কনককে কুপিয়ে জখম করেন। পরবর্তী সময়ে তাকে উদ্ধার করে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেয়া হয়। এসময় শরীর থেকে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হচ্ছিল। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার ভোরে তার মৃত্যু হয়।

ডিএমপির পল্লবী জোনের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) মো. আরিফুল ইসলাম ঢাকা টাইমসকে ফারুকের গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, পল্লবীর থানাধীন মিরপুর ডিওএইচএস-এর ৭৪৩ নম্বর বাসায় পারিবারিক বিরোধে উমামা বেগম কনককে কুপিয়ে জখম করেন তার স্বামী। পরবর্তী সময়ে হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। নিহতের পরিবার বাদী হয়ে কনক হত্যায় তার স্বামীকে অভিযুক্ত করে মামলা করে। সেই মামলায় পুলিশ স্বামী ওমর ফারুকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ধারালো বটি ও ফল কাটার চাকু উদ্ধার করা হয়েছে।

স্ত্রীকে কুপিয়ে জখমের কথা স্বীকার করেছেন ওমর ফারুক, এমনটা দাবি করে নিহতের বড় বোন রুমা আক্তার জানান, উমামার স্বামী ওমর ফারুক দীর্ঘদিন জাপানে ছিলেন। দেশে আসার পর থেকে তিনি বেকার। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই বিবাদ হতো। এর জের ধরে গতরাতে ফারুক ধারালো অস্ত্র দিয়ে উমামাকে আহত করেন। আজ ভোরে তার মৃত্যু হয়।

সম্প্রতি সংবাদ