মানিকগঞ্জে নিখোঁজের একদিন পর মিললো শিশুর লাশ

editor ৩রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ breaking সারাদেশ

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি ঃ ২২মে-২০২১,শনিবার।
নিখোঁজের একদিন পর বাড়ি থেকে অর্ধ কিলোমিটার দুরে পাওয়া গেলো প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থীর সাত বছরের শিশু সিনহা আক্তারের মরদেহ। নিহত সিনহা মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার বলড়া ইউনিয়নের পশ্চিম শানবান্ধা গ্রামের আবদুল হালিমের বড় মেয়ে। আজ শনিবার দুপুরে পশ্চিম শানবান্ধা এলাকার একটি কাঠবাগান থেকে সিনহার লাশ উদ্ধার করা হয়। শ্বাসরোধে শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে।

পুলিশ, স্থানীয় এবং পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গতকাল শুক্রবার বেলা তিনটার পর থেকে শিশু সিনহাকে খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। এর পর থেকে এলাকার বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেন পরিবারের লোকজন। আত্মীয়-স্বজনদের বাড়িতেও খোঁজ নিয়ে শিশুটির সন্ধান পাওয়া যায়নি।
খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে আজ শনিবার বেলা ১১ টার দিকে পশ্চিম শানবান্ধা গ্রামের বাড়ি থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে একটি কাঠবাগানে শিশুটির লাশ পড়ে থাকতে দেখেন এলাকাবাসী। খবর পেয়ে বেলা একটার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেন। এর পর ময়নাতদন্তের জন্য লাশ জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।
এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকবর আলী খান বলেন, লাশ উদ্ধারের সময় শিশুটির গলায় গামছা পেঁচানো অবস্থায় ছিল। তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়ে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। শিশুটি ধর্ষনের শিকার হয়েছে কি না তা ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়া গেলে জানা যাকে। তবে হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে তদন্ত চলছে।

সম্প্রতি সংবাদ