ব্রেকিং নিউজ

নিরপেক্ষ নির্বাচনের ন্যূনতম পরিবেশ নেই: মওদুদ

editor ৮ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ breaking slider-top সারাদেশ

নোয়াখাল  প্রতিনিধি     :০৩ ডিসেম্বর,সোমবার । ।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, নির্বাচনের পরিবেশ যদি থাকে তাহলে ধানের শীষের প্রার্থী বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করবে। সারা দেশে গ্রামে গ্রামে ধানের শীষের জোয়ার উঠেছে।
তিনি বলেন, সরকারের ইশারায় সারা দেশে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের পুলিশ এখনও গ্রেফতার করছে। নিরপেক্ষ নির্বাচনের নূনতম পরিবেশ এখন পর্যন্ত নেই। ধানের শীষের যে জোয়ার উঠেছে, এ জোয়ার ঠেকানো যাবে না।
সোমবার দুপুরে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সিরাজপুর ইউনিয়নের মানিকপুর গ্রামে তার নিজ বাড়িতে স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীদের মওদুদ আহমদ এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, আমাদের যারা জোটে আছে আমরা চেষ্টা করব তাদের ৫০টি আসন দিয়ে সেটা মেটানো যায় কি না। এ মুহূর্তে বলা সম্ভব নয় যে জোটকে কতগুলো আসন দেয়া হবে। এখানে কম্প্রোমাইজ একোমোডেশন খুব দরকার।
বিএনপির এ নেতা বলেন, শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত দেনদরবার হতে পারে। যেমন- একটা নির্বাচনী এলাকা সে নির্বাচনী এলাকায় খুব ভালো একটা প্রার্থী আছে। আমরা মনে করি যে, আমাদের ধানের শীষের ভোট ব্যাংক আছে এবং আমাদের প্রার্থী সেখানে জিতবে। ওই গ্রহণযোগ্য প্রার্থী জেতার সম্ভাবনা আছে এ ধরনের প্রার্থীকে আমরা সেখানে অগ্রাধিকার দেব।
তিনি বলেন, প্রার্থীর যোগ্যতা এবং জনপ্রিয়তার ওপর নির্ভর করবে। আমাদের দলের প্রার্থীর চেয়ে যদি জোটের প্রার্থীর গ্রহণযোগ্যতা বেশি হয়, তা হলে আমরা তাকে অগ্রাধিকার দেব। আমাদের দলের প্রার্থীর পরিবর্তে তিনি যদি জোটের প্রার্থী হয় তাহলে আমরা তাকে ওই স্থানে প্রার্থী দেব।
মওদুদ আহমদ বলেন, আমরা বরাবরই বলে আসছি, যে সরকার চায়নি বিরোধীদল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক। সে জন্য সরকার এখনও সব প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। আমাদের একটি দাবিও সরকার মানেনি। বরং নির্বাচনে যাতে আমরা অংশগ্রহণ না করি, সে জন্য এখন পর্যন্ত গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রেখেছে। বিরোধী দলের নির্বাচনের দিন যারা এজেন্ট হতে পারে এ ধরনের নেতাদের পুলিশ গ্রেফতার করছে। তাদের বাড়িঘরে থাকতে দিচ্ছে না।
তিনি বলেন, এত বৃহৎ একটি সংখ্যার প্রার্থিতা কমিশন বাতিল ঘোষণা করছে। আমরা সব সময় বলে আসছি নির্বাচন কমিশন এবং সরকার একই লক্ষ্যে কাজ করছে। তাদের লক্ষ্য একটাই, সেটা হলো বিরোধী দল বিহীন নির্বাচন করা। নির্বাচন কমিশন সরকারের সে লক্ষ্য বাস্তবায়ন করার জন্য কাজ করে যাচ্ছে।
প্রবীণ এ আইনজীবী বলেন, আমরা অবশ্যই এ প্রার্থিতা বাতিলকরণের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করব। যেখানে যেখানে আইনের আশ্রয় নেয়া সম্ভবপর আশ্রয় নেয়া উচিত সেসব বিষয়ে হাইকোর্ট ডিভিশনে ফাইট করে এসব সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করা হবে।
একই দিন বিকেলে মওদুদ আহমদ তার নির্বাচনী এলাকার কোম্পানীগঞ্জের চরফকিরা ইউনিয়নের চাপরাশিরহাট, রামপুর ইউনিয়নের বামনী বাজার, মুছাপুর ইউনিয়নের বাংলা বাজার, রংমালা বাজার, চরহাজারী ইউনিয়নের শান্তিরহাট এলাকায় গণসংযোগ করেন।

কালের কাগজ/প্রতিবেদক/জা.উ.ভি

সম্প্রতি সংবাদ