সবার জন্য শিক্ষা ও বর্তমান সরকারের গৃহীত পদক্ষেপ

editor ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ জাতীয়

কালের কাগজ ডেস্ক:১৭ জিানুয়ারী,বৃহস্পতিবার ।

‘সবার জন্য শিক্ষা’ কার্যক্রম বাস্তবায়নের স্বার্থে গুরুত্ববহ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে বর্তমান শেখ হাসিনা সরকার। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে শিক্ষার আলো পৌঁছে দিতে সরকারের প্রচেষ্টা অনেকটাই সফল হয়েছে। বর্তমান সরকারের অধীনে গত ১০ বছরে দেশের ২৬ হাজার ১৯৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ২৫৭টি উচ্চ বিদ্যালয় এবং ৩৩৩টি মহাবিদ্যালয়কে জাতীয়করণ করা করেছে।

শুধুমাত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ করা ছাড়াও সরকার বিনামূল্যে দশম শ্রেণী পর্যন্ত বই বিতরণ করছে। আগামীতে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত বিনামূল্যে বই বিতরণ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠী শিক্ষার্থীদের মূলধারার জনগোষ্ঠীর সাথে সংযুক্ত করার জন্যে বিভিন্ন ভাষায় পাঠ্যবই মুদ্রণ ও বিতরণ করা হচ্ছে।

সরকার গত দশ বছরে এক লাখ ৪২ হাজার প্রাইমারি স্কুল শিক্ষকের চাকরি জাতীয়করণ এবং এক হাজার ৫শ’ নতুন বিদ্যালয় স্থাপন করা হয়েছে। একই সময়ে পার্বত্য চট্টগ্রামের তিনটি জেলায় ১৯টি আবাসিক বিদ্যালয় স্থাপন করা হয়েছে। বর্তমান অর্থবছরে সরকার এক লাখ ৬৫ হাজার ২২৫ জন সহকারী শিক্ষক ও চার হাজার ৪শ’ জন প্রধান শিক্ষক নিয়োগ দিয়েছে এবং প্রধান শিক্ষকদের চাকরি দ্বিতীয় গ্রেডে উন্নীত ও সহকারী শিক্ষকদের বেতন দ্বিগুণ করা হয়েছে। চলতি অর্থবছরে ৫৩ হাজার ৫৪ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার।

তথ্য মন্ত্রণালয়ের হিসাব অনুযায়ী, নারীর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার ৬০ শতাংশ নিয়োগ দিয়েছে নারী শিক্ষকদের। প্রাথমিক শিক্ষা খাতে কর্মরত পাঁচ লাখ ২৭ হাজার ৭৯৮ জন শিক্ষকের মধ্যে তিন লাখ ১৪ হাজার ২৯৯ জন নারী শিক্ষক। এছাড়া সরকার কওমি মাদরাসার দাওরায়ে হাদিস-কে মাস্টার্স ডিগ্রির সমমান করে ৩৫ লাখ মাদরাসা শিক্ষার্থীকে মূল ধারায় নিয়ে আসা সম্ভব হয়েছে।

সরকারের এ সকল কার্যক্রমের সুফল পেতে শুরু করেছে শিক্ষার্থী ও শিক্ষা সংশ্লিষ্ট সকলে। সরকারের এ উদ্যোগে ঝরে পড়ার হার উল্লেখ্যযোগ্য হারে কমে গিয়েছে। বাড়ছে দেশের সামগ্রিক শিক্ষার হার। প্রত্যন্ত অঞ্চলে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেওয়া সম্ভবপর হয়েছে। আদিবাসী শিক্ষার্থীদের দেশের মূলধারার শিক্ষাব্যবস্থার সাথে সংযুক্ত করা সম্ভব হয়েছে।

সম্প্রতি সংবাদ