ব্রেকিং নিউজ

বিএনপিকে বাঁচাতে তারেক ও খালেদা জিয়ার অপসারণ চান বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবীরা

editor ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ জাতীয়

 

কালের কাগজ ডেস্ক :২৩ জানুয়রী,বুধবার ।
নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভরাডুবির পর নিবন্ধন বাঁচাতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেয় বিএনপি। তবে গত ৩০ ডিসেম্বর ৮০ শতাংশ ভোটারের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনেও নজিরবিহীন ভরাডুবি হয় দলটির। এদিকে প্রতিষ্ঠাতা পরিবারের শীর্ষ দুই নেতা বেগম খালেদা জিয়া দুর্নীতির দায়ে জেলে ও তারেক রহমান বিদেশে পলাতক রয়েছে। দলের এমন করুণ পরিণতিতে যখন তরুণ নেতৃত্বের হাতে দায়িত্ব ছেড়ে দিয়ে ইতিহাস তৈরির পরিকল্পনা করছে বিএনপির শীর্ষ পর্যায়, ঠিক তখনই বিএনপিকে ধ্বংসের হাত থেকে বাঁচাতে নতুন উপায়ে এগোনোর পরামর্শ দিয়েছেন খোদ কট্টর বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবী ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। বিএনপিকে রক্ষা করতে দলীয় পদ ও কার্যক্রম থেকে তারেক রহমান ও খালেদা জিয়াকে সরিয়ে দেয়া উচিৎ বলে মনে করছেন তিনি।

একটি বেসরকারি টেলিভিশনে দেয়া সাক্ষাৎকারে জাফরুল্লাহ বলেন, ‘যেহেতু সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির জ্যেষ্ঠ্য নেতা খালেদা জিয়া বর্তমানে কারাবন্দী, তাই তাকে দলীয় প্রধানের পদ থেকে সরিয়ে ইমিরেটাস চেয়ারপার্সন করা যেতে পারে।’

গত ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের ফলাফলের পর এখন পর্যন্ত বিএনপির শীর্ষ পর্যায় থেকে গণমাধ্যমের কাছে দলের একাত্মতার কথা দাবি করা হলেও অনুসন্ধানে জানা গেছে, দলটির বর্তমান শীর্ষ নেতৃত্ব সরিয়ে, নতুনদের দায়িত্বে আনা না আনা নিয়ে এরইমধ্যে দুই পক্ষে বিভক্ত হয়ে গেছে কেন্দ্রীয় ও তৃণমূল নেতারা। রাজনীতিতে ঘুরে দাঁড়ানোর লক্ষ্যে দলের অভ্যন্তরে জোড় আওয়াজ উঠেছে শীঘ্রই জরুরি কাউন্সিল করে তরুণ নেতৃত্ব আনার। এরইমধ্যে বিএনপি অঙ্গনে খবর চাউর হয়েছে, মির্জা ফখরুলকে বাদ দিয়ে বিএনপির নতুন নেতৃত্বে জিয়া পরিবারের বড় পুত্রবধূ ডা. জোবাইদা রহমানকে আনা হতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেও যে তরুণ নেতৃত্বের পক্ষে, মন্ত্রিসভা গঠনের মাধ্যমে তা এরইমধ্যে প্রমাণ করেছেন।

বিএনপির দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ১৯ মার্চ জাতীয় কাউন্সিলের পর থেকে বিএনপির ১৯ সদস্যের স্থায়ী কমিটির দুটি পদ ফাঁকা রেখেই কমিটি দিয়েছিলেন খালেদা জিয়া। বাকি ১৭ সদস্যের মধ্যে তরিকুল ইসলাম, আ স ম হান্নান শাহ ও এমকে আনোয়ার মারা গেছেন। ফলে বর্তমানে পাঁচটি পদ ফাঁকা।
এদিকে গত টানা দুই নির্বাচনে ভরাডুবির পর আগামিতে বিএনপির রাজনীতিতে নতুনদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে খবরটি ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই দলটির একেবারের কেন্দ্রীয় প্রধান থেকেই পরিবর্তনে পরামর্শ দিয়েছেন কট্টোর বিএনপিপন্থী রাজনীতি বিশ্লেষক ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

তিনি বলেন, ‘বহির্বিশ্বে নেতিবাচক ধারণা থাকায় দণ্ডিত তারেক রহমানকে আপাতত দল থেকেই সরিয়ে দেয়া দরকার। একই সঙ্গে কারাবন্দি খালেদা জিয়াকে দলীয় প্রধান হিসেবে আর দেখতে চাচ্ছিনা। খালেদা জিয়াকে হয়তো সম্মানজনক চেয়ারপার্সন হিসেবে রেখে এমন ক্ষমতা দেয়া হোক যে স্থায়ী কমিটি হলে উনি পাঁচ জনকে মনোনীত করতে পারবেন। আমার মতে সংশোধন করে ওই পদটা বিলুপ্ত করা দরকার।’

তিনি বলেন, ‘পার্টির অভ্যন্তরে গণতন্ত্র আনা দরকার। এরজন্য তাদের প্রথম কাজ হবে একটা জরুরী কাউন্সিল মিটিং করা। এছাড়া নির্বাচন করে কমিটি করা হোক। আগে যেমন খালেদা জিয়া ছিলেন, তারা ঠিক করে দিতেন। এটা এখন আর চলতে পারে না।

সম্প্রতি সংবাদ