Logo
ব্রেকিং :
২ শিশুপুত্রসহ  ভাগ্নিকে হত্যার দায়ে যুবকের মৃত্যুদণ্ড কালিহাতী প্রেসক্লাবের নয়া সভাপতি রঞ্জন-সম্পাদক মিল্টন মানিকগঞ্জ কামিল মাদ্রাসার গভর্নিং বডি নির্বাচন স্থগিত নেত্রকোনায় অনুকূলচন্দ্রের নগর পরিক্রমা সিরাজগঞ্জে বিরোধের জের ধরে  প্রতিপক্ষের   রোপনকৃত ৫০টি  চারা গাছ কর্তনের অভিযোগ নাগরপুরে ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠিত  সাংবাদিকের  মৃত্যুতে নগরকান্দা প্রেসক্লাবে স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ভাঙ্গা থেকে বরিশাল হয়ে পায়রা বন্দর পর্যন্ত রেললাইন চালু করা হবে—-রেলপথ মন্ত্রী মোঃ জিল্লুল হাকিম সিরাজগঞ্জে শালুয়াভিটা সিনিয়র  মাদ্রাসায়  তিনটি পদে নিয়োগ পরীক্ষার  আগেই  মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে প্রার্থী চুড়ান্ত করার অভিযোগ  নাগরপুরে  শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ 
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় ছাত্রীর বাড়িতে বখাটের পরিবারের হামলা, শ্লীলতাহানী ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ

রিপোর্টার / ৬২ বার
আপডেট রবিবার, ২১ আগস্ট, ২০২২

শাহজাহান আলী মনন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:২১ আগস্ট-২০২২,রবিবার।
স্কুল ও কোচিংয়ে যাওয়ার পথে নিয়মিত উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় দশম শ্রেণীর এক ছাত্রীর বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙ্চুর, মারধর করেছে বখাটের পরিবার। বাধা দেয়ায় ছাত্রীটির মায়ের পড়নের কাপড় ছিড়ে ফেলাসহ গলাটিপে হত্যার চেষ্টা এবং বৃদ্ধা দাদীর বুকে ঘুসি মেরে গুরুত্বরভাবে আহত করা হয়েছে।
রবিবার (২১ আগস্ট) সকাল ১০ টায় নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের উত্তর সোনাখুলী বদিয়তপাড়ায় এই ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় সৈয়দপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীর মা।
উত্যক্তের শিকার ছাত্রীটি বলেন, আমি ছমির উদ্দীন আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে দশম শ্রেণীতে পড়ি। স্কুল ও কোচিংয়ে যাতায়াতের পথে প্রায়ই কিছু বখাটে ছেলে বেশ কিছুদিন যাবত নানা কটু কথা বলে ও অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করে আমাকে উত্যক্ত করে আসছে। অনেক নিষেধ করা সত্বেও তারা বিরত হয়না।
এরই ধারাবাহিকতায় ঘটনার দিন (রবিবার) সকাল সাড়ে ৯ টায় কোচিং থেকে বাড়ি যাওয়ার পথে বুড়ির বাজার কমিউনিটি ক্লিনিক হতে বদিয়তপাড়ার মাঝের দোলায় আমাকে একা পেয়ে নোংরা ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে প্রতিবেশী সামসুলের ছেলে আলামিন (২০), আলমগীর (১৮) ও আইনুল (১৬)।
এসময় প্রতিবাদ করলে তাদের সাথে থাকা ছোট ছোট আরও কয়েকজন ছেলেকে দিয়ে রাস্তার পাশের ফসলী জমি থেকে কাদা তুলে আমার দিকে নিক্ষেপ করায়। এছাড়াও রাস্তার ভাঙা অংশ থেকে পাথর ও খোয়া তুলে ঢিল মারে। এতে আমি আহত হই এবং আমার জামা কাপড় ও বইয়ের ব্যাগ কর্দমাক্ত হয়। রাগে ধাওয়া করে আইনুল কে ধরে গালে থাপ্পড় দিলে সবাই পালিয়ে যায়।
এমতাবস্থায় আমি বাড়িতে ফেরার মাত্র আধাঘণ্টা পর আইনুল, আলামিন ও আলমগীর সহ তাদের বাবা সামসুল (৪৫), মা আরজিনা (৩৫), চাচা আইজুল (৪৮), চাচী মোছাঃ ফতে (৩৮) ও তাদের ছেলে মো. মারুফ (২৫) সহ অজ্ঞাতনামা আরও ৪/৫ জন ভাড়াটিয়া লোকজনকে নিয়ে লাঠিসোটা, লোহার রড ও দেশীয় অস্ত্রসহ এসে অতর্কিত হামলা চালায়।
মেয়েটির মা বলেন, তারা দলবদ্ধভাবে আমাদের ঘর বাড়িতে ভাঙ্চুর চালায়। বাধা দিতে গেলে তারা আমার উপর চড়াও হয়। সামসুলের হুকুমে সকলে মিলে আমাকে বেধড়ক মারপিট করে। এক পর্যায়ে চুলের মুঠি ধরে মাটিতে ফেলে দেয় এবং আলামিন আমার বুকের উপর উঠে বসে গলা চেপে ধরে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করে। এতে সজোরে ধাক্কা দিয়ে প্রাণে রক্ষা পাই। কিন্তু তারা আমার পড়নের কাপড় টেনে হিচড়ে ছিড়ে ফেলে।
মেয়েটির বৃদ্ধা দাদী বলেন, আমার নাতনীকে ছেলেগুলো সবসময় রাস্তাঘাটে বিরক্ত করে। আজ একজনকে ধরে চড় মারায় তারা স্বপরিবারে এসে সন্ত্রাসীদের মত হামলা করে। বৌমার কাপড় ছিড়ে ফেলে ধর্ষণের চেষ্টা করে। না পেরে গলাটিপে হত্যা করতে চায়। এসময় আমি চিৎকার করায় তারা আমাকেও মারে। সামসুল নিজে আমার বুকে ঘুসি মারায় প্রচন্ড আঘাত পেয়েছি। তারা আমার নাতনীকেও মারধর করেছে।
পরে আমার ছেলে চিৎকার চেঁচাচেচি শুনে এগিয়ে আসলে প্রতিপক্ষরা পালিয়ে যায়। এসময় তারা নানা হুমকি দিয়ে যায়। এব্যাপারে আইনের আশ্রয় নিলে মেয়েকে রাস্তায় পেলে ধর্ষণ ও প্রাণে মেরে ফেলবে। এমনকি পরিবারের উপর আবারও হামলা চালানোসহ মিথ্যে মামলা দিয়ে জেল হাজতে পাঠাবে।
ছাত্রীটির বাবা আনসার ভিডিপি সদস্য বলেন, ঘটনার পরপরই ৯৯৯ নম্বরে কল দিলে পুলিশ থানায় আসতে বলে। তাই সামসুলসহ তার পরিবারের ৭ জনকে আসামী করে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। এস আই মারুফ বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নিবে বলে জানিয়েছে। বখাটেপনার বিচারসহ মেয়ে ও পরিবারের সব সদস্যের জীবনের নিরাপত্তার দাবী করেন তিনি।
সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম জানান, অভিযোগের বিষয়ে কিছু জানিনা। তবে লিখিত দিয়ে থাকলে তদন্ত করে সে অনুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এদিকে অভিযুক্তদের বাড়িতে গেলে তাদের কাউকেই পাওয়া যায়নি। তাই ঘটনার বিষয়ে তাদের মন্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।


এ জাতীয় আরো খবর
Tech Support By Nagorikit.Com