Logo
ব্রেকিং :
ভোলায় ট্রলি উল্টে গুরুতর আহত দুই শ্রমিকের মৃত্যু, আহত ১৫ নবাবগঞ্জে নবীণ বরণ ও সম্বর্ধনা অনুষ্ঠান  “নবাবগঞ্জে মামলা দায়েরের  ২৪ ঘন্টার মধ্যে চোর আটক , চোরাই মাল উদ্ধার ।” নগরকান্দায় জমকালো আয়োজনে এন,সি,টি, গার্মেন্টস এর শুভ উদ্বোধন  আদমদীঘিতে কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত সান্তাহার সরকারি কলেজে একাদশ শ্রেণির ওরিয়েন্টেশন ক্লাসের শুভ উদ্বোধন ঢাকার মহা সমাবেশ সফল করতে টাঙ্গাইলে গালা ইউনিয়ন বিএনপির লিফলেট বিতরণ টাঙ্গাইলে পরিচ্ছন্ন ও যানজট মুক্ত রাখতে শোভাযাত্রা নেত্রকোনায় শিল্পোদ্যোক্তা উন্নয়ন প্রশিক্ষন কোর্স জনগনও মনে করে ভোট ছাড়া অন্য কোন উপায় নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

খালেদা জিয়া একেবারেই হাঁটাচলা করতে পারছেন না: রিজভী

রিপোর্টার / ২৮ বার
আপডেট সোমবার, ৮ এপ্রিল, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক;০৮এপ্রিল ২০১৯,সোমবার।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন কারাবন্দি খালেদা জিয়া একেবারেই হাঁটাচলা করতে পারছেন না।

সোমবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

রিজভী বলেন, পিজি হাসপাতালে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার যথাযথ ব্যবস্থা নেই। ডাক্তারদের দিয়ে গঠিত বোর্ড তার রোগ নির্ণয় ও চিকিৎসায় কোনো অগ্রগতি নেই। তারাও স্বীকার করছেন দেশনেত্রীর ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে আসছে না। আমরা জেনেছি, তিনি একেবারেই হাঁটাচলা করতে পারছেন না। ডায়াবেটিস, জটিল অন্যান্য রোগ ও চোখের সমস্যাসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত বেগম খালেদা জিয়া এখন গুরুতর অসুস্থ।

তিনি বলেন, সরকার তার বড় ধরনের কোনো ক্ষতি করার জন্য সময়ক্ষেপণ করছে কি না এ নিয়ে জনমণে প্রশ্ন গভীরতর হচ্ছে। তবে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার ক্ষতিকর কিছু হলে এর দায় সরকারকেই নিতে হবে।

তিনি আরও বলেন, চিকিৎসা ও জামিনে বাধা প্রদানের পেছনে সরকারের গভীর ভয়ংকর নীলনকশা এখন দিনের আলোর মতো স্পষ্ট হতে শুরু করেছে। গত কয়েকদিন ধরে সরকারদলীয় লোকদের মিডিয়া এবং মন্ত্রী ও তাদের নেতাদের কথাবার্তায় মনে হচ্ছে বেগম খালেদা জিয়ার প্যারোল নিয়ে তাদের ঘুম হারাম হয়ে গেছে।

অভিযোগ করে রিজভী বলেন, খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য প্যারোলে মুক্তি দেয়ার বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আছাদুজ্জামান কামাল এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ সাহেবের বক্তব্য বিপরীতধর্মী। এতে বুঝা যায় তারা বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও চিকিৎসা নিয়ে নিষ্ঠুর তামাশা করছেন।

তিনি বলেন, নিঃশর্তভাবে দেশনেত্রীকে মুক্তি দিতে হবে। তাকে সাজানো মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কারাগারে এক বছরের বেশী সময় বন্দী রাখা হয়েছে। জামিন পাওয়া তার নাগরিক অধিকার, সাংবিধানিক অধিকার। যে মিথ্যা মামলায় তাকে জোর করে সাজা দেওয়া হয়েছে, সেই মামলায় অন্যান্য ব্যক্তিরা সবাই জামিনে রয়েছেন। আদালতের ওপর প্রভাব খাটিয়ে শুধু দেশনেত্রীকে জামিন দেয়া হচ্ছে না। নতুন নতুন গ্রেফতারী পরোয়ানা দেয়া হচ্ছে।

রিজভী বলেন, সরকারকে বলবো-এক মাঘে শীত যায় না। ফুঁসছে মানুষ। জনতার আদালত তৈরি হচ্ছে। তাই নিজেদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে চক্রান্ত ষড়যন্ত্র বন্ধ করে দ্রুত দেশনেত্রী জনগণের আস্থার প্রতীক বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তিতে আর বাধা দিবেন না। জনগনের নেত্রীকে জনগণের মাঝে ফিরতে দিন।


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com