Logo
ব্রেকিং :
আমরা রাজনীতি করি দেশের উন্নয়নের জন্য —স্বাস্থ্যমন্ত্রী ছায়াপথ সাহিত্য পরিষদের  প্রথম সাহিত্য আড্ডা অনুষ্ঠিত  নাগরপুর মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন;সভাপতি ফজলুর রহমান , সাধারণ সম্পাদক মো.আব্দুল রউফ দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে ৬১অবৈধ করাতকল  গোয়ালন্দে শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা অ্যাথলেকিস প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত নগরকান্দায় পুলিশের অভিযানে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার,পুলিশের সংবাদ সম্মেলন ঈশ্বরগঞ্জে বাসাবাড়ি দখলের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন দাম বাড়েনি মনোহরদীর মানুষ বিক্রির বাজারে শিক্ষা ব্যবস্থাকে উন্নত করতে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দিতে হবে – শিক্ষা মন্ত্রী ড. দীপু মনি ভোলায় অবৈধ অটোরিক্সায় চাপায় এক পথশিশুর মৃত্যু
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

ঝুঁকিপূর্ণ ভবন অপসারণে কঠোর হচ্ছে সরকার

রিপোর্টার / ২৩ বার
আপডেট রবিবার, ৭ এপ্রিল, ২০১৯

কালের কাগজ ডেস্ক: ৭ এপ্রিল ২০১৯

সাম্প্রতিক সময়ে পুরান ঢাকার চকবাজার ও বনানীর এফআর টাওয়ারের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন শতাধিক মানুষ। উক্ত অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার শিকার হওয়া দুটি ভবনই নিয়ম নীতি না মেনে বিল্ডিং কোড তোয়াক্কা না করে তোলা হয়েছিলো। এমনকি উক্ত দুটি ভবনে অগ্নি-নির্বাপণেরও কোনো ব্যবস্থা ছিলো না। এসব অগ্নিকাণ্ডের পর রাজধানী ঢাকা থেকে ঝুঁকিপূর্ণ ভবন অপসারণে কঠোর হতে যাচ্ছে সরকার। এরই মধ্যে রাজধানীর ঝুঁকিপূর্ণ ভবন অপসারণে মাঠ পর্যায়ে কাজ শুরু করেছে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও সিটি কর্পোরেশন।
২০১৭ সালে পরিসংখ্যানেই ছিল, রাজধানীর ৪৮ শতাংশ শপিং মল এবং মার্কেট অতি ঝুঁকিপূর্ণ। বাকি ৫১ শতাংশ ঝুঁকিপূর্ণ। সন্তোষজনক মাত্র ৫টি। এছাড়া দুই বছর আগে এক পরিসংখ্যানে, রাজধানীর ৯৯ শতাংশ শপিং মল ও মার্কেট ভবন ঝুঁকিপূর্ণ বলে জানায় ফায়ার সার্ভিস। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এমন ভবনে লাখ লাখ ক্রেতা ও ব্যবসায়ী করছেন বেচাকেনা। ঝুঁকিপূর্ণ ভবনগুলোকে বারবার সতর্ক করেও মিলছে না কোন ফল। এবার তাই কঠোর পদক্ষেপের ঘোষণা দিয়েছে দুই সিটি কর্পোরেশন।
দুই সিটি কর্পোরেশনের পাশাপাশি রাজধানীতে ঝুঁকিপূর্ণ সকল ভবন অপসারণের প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। গত শনিবার ঢাকা ইউটিলিটি রিপোর্টার্স এ্যাসোসিয়েশন (ডুরা) ‘ইমারত নির্মাণে সরকারের দায়িত্ব ও নাগরিকদের করণীয়’ শীর্ষক ‘মিট দ্য প্রেস’ সেমিনারে ঝুঁকিপূর্ণ সকল ভবন চিহ্নিত করে এর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বলেছেন। ভবন নির্মাণে অনুমোদিত নকশার বাইরে মালিকের নিজস্ব প্ল্যান বাস্তবায়ন করে ভবন নির্মাণ কোনক্রমেই সহ্য করা হবে না বলে জানিয়েছেন উক্ত মন্ত্রী।
তিনি আরও বলেছেন, পুরান ঢাকার জন্য আমরা রি-ডেভেলপমেন্ট পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি। এছাড়া শুধু ভবন মালিক নন অবৈধ ভবন নির্মাণের সঙ্গে জড়িত কোন রাজউকের ইন্সপেক্টর থেকে শুরু করে রাজউক বোর্ডের সদস্য জড়িত থাকলে তাকেও কোন ছাড় দেয়া হবে না বলে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মন্ত্রী।
ঢাকার বহুতল ভবনগুলোর অবস্থা জানতে ২৪টি পরিদর্শক দল গঠন করে দেয়া হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, এসব দলের সব রিপোর্ট নিয়ে বিভিন্ন পর্যায়ের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আমরা বসে পরবর্তী করণীয় ঠিক করব। এসব ভবনে যা যা ত্রুটি পাওয়া যাবে তা সমাধান করতে মালিককে নির্ধারিত সময় বেঁধে দেয়া হবে। ওই সময়ের মধ্যে ঠিক না করতে পারলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com