Logo
ব্রেকিং :
বিপিএলের ট্রফি গেল বরিশালে শপথ নিলেন নতুন ৭ প্রতিমন্ত্রী বেইলি রোডের আগুনে মৃত ৩৮ জনের পরিচয় শনাক্ত, হস্তান্তর ২৯ বেইলি রোডের আগুনে ৪৬ জনের মৃত্যু : আশঙ্কাজনক ১৯ ঘিওরে রাতের আঁধারে বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে ফেললো দুর্বৃত্তরা রাণীশংকৈলে জাতীয় বীমা দিবস পালন উপলক্ষে র‍্যালি ও আলোচনা সভা  নগরকান্দায় কুকুরের কামড়কে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ আহত -১০ বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হমলা লুটপাট গোয়ালন্দে দীর্ঘ দিন পর  শিল্পকলা একাডেমির কার্যক্রম শুরু, চলছে শিক্ষার্থী ভর্তি গোয়ালন্দে পায়াকট বাংলাদেশের  সেফ হোমে ইউএনও’র মানবিক সাহায্য প্রদান নেত্রকোনায় দি হলি চাইল্ড কিন্ডার গার্টেনের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

টাঙ্গাইলের পোড়াবাড়ীতে বাদী মামলা প্রত্যাহার না করায় হাতুড়ী ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে হত্যা চেষ্টা

রিপোর্টার / ৩০৭ বার
আপডেট বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২৩

মুক্তার হাসান,টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ঃ৩০ নভেম্বর-২০২৩,
টাঙ্গাইল সদর উপজেলার পোড়াবাড়ী ইউনিয়নের বড় বেলতা গ্রামের অলোয়ার চরে লোমহর্ষক এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে। বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা যায়, একই গ্রামের শাজাহান আলী বাদী হয়ে টাঙ্গাইল বিজ্ঞ আদালতে ২০/১১/২৩ইং তারিখে চান মিয়া, রানা, শজল ও বিপ্লবসহ ১২জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। সি.আর মামলা নম্বর-২১৮৮/২০২৩, মামলাটি বর্তমানে টাঙ্গাইল সদর থানায় তদন্তাধীন। উক্ত মামলাটি প্রত্যাহার করার জন্য বিবাদী ও তাদের আত্বীয় স্বজন মিলে বাদীকে চাপ প্রয়োগ করে। এতে বাদী রাজি না হওয়ায় বিবাদীগণ অত্যান্ত সুপরিকল্পিত ভাবে বাদীর ছেলে মো. শিতল (১৭)কে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ডেকে নিয়ে পূর্ব থেকে ওঁত পেতে থাকা চান মিয়া, রানা, সুমন, রাজন, শজল ও বিপ্লবসহ অজ্ঞাত আরো ৪/৫জন মিলে লোহার রড, হাতুড়ী, ধারালো চাকু, বাশেঁর লাঠি দিয়ে এলোপাথারী বাইরাইয়া শরীরের বিভিন্ন অংশে নিলাফুলা জখম করে। এছাড়াও শিতলের ডান পায়ে হাটুর নিচে হাতুড়ী দিয়ে মারাত্বক ভাবে আঘাত করে হাড়গোর ভেংগে দেয়। খবর পেয়ে মুমূর্ষ অবস্থায় গতকাল ২৯/১১/২০২৩ইং তারিখে টাঙ্গাইল সদর হাসপাতালে ৩য় তালায় ৬নং ওয়ার্ডের সার্জারী বিভাগে ভর্তি করা হয়। এ বিষয়ে স্থানীয় এলাকাবাসি বলেন, সভ্যতার এই যুগে ৮/১০জন মিলে নির্মম ভাবে একটি ছেলেকে মেরে অজ্ঞান অবস্থায় ফেলে রেখে যায় এটা একটি লোম হর্ষক ও বেদনা দায়ক ঘটনা। আমরা দোষীদের আইনের আওতায় এনে দ্রæত শাস্তির দাবী জানাচ্ছি। এব্যাপারে ভুক্তভুগির পিতা শাজাহান মিয়া টাঙ্গাইল মডেল থানায় আরো একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার বিষয়ে কাগমারী পুলিশ ফাঁড়ীর তদন্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ দুলাল আকন্দর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, এই বিষয়টি দ্রæত তদন্ত করে দোষীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।
অত্র ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাহাদত হোসেন এর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় গিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমি জরুরী একটা কাজে টাঙ্গাইল আছি পরে কথা হবে।


এ জাতীয় আরো খবর
Tech Support By Nagorikit.Com