Logo
ব্রেকিং :
ভোলায় ট্রলি উল্টে গুরুতর আহত দুই শ্রমিকের মৃত্যু, আহত ১৫ নবাবগঞ্জে নবীণ বরণ ও সম্বর্ধনা অনুষ্ঠান  “নবাবগঞ্জে মামলা দায়েরের  ২৪ ঘন্টার মধ্যে চোর আটক , চোরাই মাল উদ্ধার ।” নগরকান্দায় জমকালো আয়োজনে এন,সি,টি, গার্মেন্টস এর শুভ উদ্বোধন  আদমদীঘিতে কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত সান্তাহার সরকারি কলেজে একাদশ শ্রেণির ওরিয়েন্টেশন ক্লাসের শুভ উদ্বোধন ঢাকার মহা সমাবেশ সফল করতে টাঙ্গাইলে গালা ইউনিয়ন বিএনপির লিফলেট বিতরণ টাঙ্গাইলে পরিচ্ছন্ন ও যানজট মুক্ত রাখতে শোভাযাত্রা নেত্রকোনায় শিল্পোদ্যোক্তা উন্নয়ন প্রশিক্ষন কোর্স জনগনও মনে করে ভোট ছাড়া অন্য কোন উপায় নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

টাঙ্গাইলে উপজেলা নির্বাচনে বেসরকারী ভাবে বিজয়ী হলেন যারা

রিপোর্টার / ২৩ বার
আপডেট সোমবার, ১ এপ্রিল, ২০১৯

মুক্তার হাসান,টাঙ্গাইল থেকে ঃ০১এপ্রিল-২০১৯,সোমবার।
টাঙ্গাইলের ১২ উপজেলার আটটিতে আওয়ামী লীগ, তিনটিতে বিদ্রোহী ও একটিতে বিএনপির বহিষ্কৃত স্বতন্ত্র প্রার্থী বেসরকারী ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।
তবে এর মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় গোপালপুর, ধনবাড়ী ও মধুপুর উপজেলায় চেয়ারম্যান প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন। রোববার রাতে উপজেলা পর্যায়ের চেয়ারম্যান প্রার্থী’র নামের তালিকা ও ফলাফল সহকারী রির্টানিং কর্মকর্তারা বেসরকারি ভাবে ঘোষণা করেন।
সদর উপজেলা: আওয়ামী লীগ প্রার্থী শাহজাহান আনছারী নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৫৯ হাজার ৯৬৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আজগর আলী ঘোড়া প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩৭ হাজার ৭৯৫ ভোট।
মির্জাপুর উপজেলা: আওয়ামী লীগ প্রার্থী মীর এনায়েত হোসেন মন্টু নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৬৮ হাজার ৮৫৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা বিএনপি সদস্য (পদত্যাগপ্রাপ্ত) ফিরোজ হায়দার খান মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে ৪১ হাজার ৪৯৯ ভোট পেয়েছেন।
ঘাটাইল উপজেলা: আওয়ামী লীগ প্রার্থী শহিদুল ইসলাম লেবু নৌকা প্রতীক নিয়ে ৬৪ হাজার ১০৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মুহাম্মদ আরিফ হোসেন আনারস প্রতীক নিয়ে ২৯ হাজার ৮৮৭ ভোট পেয়েছেন ।
ভূঞাপুর উপজেলা: আওয়ামী লীগের প্রার্থী আব্দুল হালিম (নৌকা) ২০ হাজার ৬৮০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আমিরুল ইসলাম তালুকদার (মোটরসাইকেল) ১৫ হাজার ৯১৪ ভোট পেয়েছেন।
সখীপুর উপজেলা: আওয়ামী লীগ প্রার্থী জুলফিকার হায়দার কামাল (নৌকা) ৫০ হাজার ৯১ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু সাইদ মিয়া (আনারস) ৩৬ হাজার ৪৩৬ ভোট পেয়েছেন।
দেলদুয়ার উপজেলা: স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহমুদুল হাসান (আনারস) ২৬ হাজার ৯৯০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ফজলুল হক (নৌকা) ১৫ হাজার ৮৫৭ ভোট পেয়েছেন। ধনবাড়ী উপজেলা: আওয়ামী লীগ প্রার্থী হারুন অর রশিদ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন। মধপুর উপজেলা: আওয়ামী লীগ প্রার্থী ছরোয়ার আলম খান আবু বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন। গোপালপুর উপজেলা: আওয়ামী লীগ প্রার্থী ইউনুছ ইসলাম তালুকদার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় বিজয়ী হয়েছে।
কালিহাতী উপজেলা: আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী আনছার আলী (আনারস) ৬৬ হাজার ০২৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোজহারুল ইসলাম তালুকদার (নৌকা) ২৭ হাজার ৮৪৯ ভোট পেয়েছেন। বাসাইল উপজেলা: আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান কাজী অলিদ ইসলাম (আনারস) ৩৫ হাজার ৩৬১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মতিয়ার রহমান গাউস (নৌকা) পেয়েছেন ১৩ হাজার ৫৮৮ ভোট। নাগরপুর উপজেলা: এ উপজেলায় বিএনপি নেতা আব্দুছ ছামাদ দুলাল (ঘোড়া) ৩৫ হাজার ৮৪৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কুদরত আলী পেয়েছেন (নৌকা) ২৮ হাজার ৩৭২ ভোট।

কালের কাগজ/প্রতিনিধি/জা.উ.ভি


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com