Logo
ব্রেকিং :
২ শিশুপুত্রসহ  ভাগ্নিকে হত্যার দায়ে যুবকের মৃত্যুদণ্ড কালিহাতী প্রেসক্লাবের নয়া সভাপতি রঞ্জন-সম্পাদক মিল্টন মানিকগঞ্জ কামিল মাদ্রাসার গভর্নিং বডি নির্বাচন স্থগিত নেত্রকোনায় অনুকূলচন্দ্রের নগর পরিক্রমা সিরাজগঞ্জে বিরোধের জের ধরে  প্রতিপক্ষের   রোপনকৃত ৫০টি  চারা গাছ কর্তনের অভিযোগ নাগরপুরে ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠিত  সাংবাদিকের  মৃত্যুতে নগরকান্দা প্রেসক্লাবে স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ভাঙ্গা থেকে বরিশাল হয়ে পায়রা বন্দর পর্যন্ত রেললাইন চালু করা হবে—-রেলপথ মন্ত্রী মোঃ জিল্লুল হাকিম সিরাজগঞ্জে শালুয়াভিটা সিনিয়র  মাদ্রাসায়  তিনটি পদে নিয়োগ পরীক্ষার  আগেই  মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে প্রার্থী চুড়ান্ত করার অভিযোগ  নাগরপুরে  শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ 
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

দৌলতদিয়া পদ্মা নদী থেকে অবৈধ ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন করে চলছে বিক্রি

রিপোর্টার / ৭০ বার
আপডেট রবিবার, ১৭ জুলাই, ২০২২

 আবুল হোসেন, রাজবাড়ী প্রতিনিধি :
রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া পদ্মা নদীর চর কর্ণেশন কলা বাগান এলাকা ও ক্যানাল ঘাট মরা পদ্মা নদী থেকে  ওমর আলী মোল্লা পাড়ায় ও  গফুর মন্ডল পাড়ার সামনে হতে মাল্লাপট্রি ব্রীজ পর্যন্ত মরা পদ্মা নদী থেকে অবৈধ ড্রেজিং মেশিন দিয়ে অবাধে মাটি ও বালু উত্তোলন করে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করছে একটি প্রভাবশালী চক্র।  পদ্মা নদীর চর কর্ণেশন মৌজার কলা বাগান এলাকা  থেকে দীর্ঘ দিন  বালু উত্তোলন করে বিক্রি করছে  একটি মহল। এছাড়া ক্যানেল ঘাট  মরা পদ্মা নদী থেকে ড্রেজার দিয়ে  মাটি ও বালু উত্তোলন করে বিক্রির  ফলে  নদীর দু পাশে থাকা দুটি গ্রামের কয়েক শত পরিবারও রাস্তা ঘাট মসজিদ সহ ফসলি জমি রয়েছে ঝুঁকিতে রয়েছে।  যে কোন সময় নদীতে ধসে পড়ার সম্ভবনা রয়েছে।
জানাগেছে, চর কর্ণেশন কলা বাগান এলাকা থেকে এক বছর ধরে  অবৈধ ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করছে ইসমাইল নামে এক বালু ব্যবসায়ী তার বাড়ী দৌলতদিয়া আইনদ্দিন প্রামনিকের পাড়া ৭ নং ওয়ার্ড। দীর্ঘ দিন প্রশাসনের চোখ ফাকি দিয়ে মুল পদ্মা নদী থেকে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করছে।
দৌলতদিয়া ক্যানাল ঘাট এলাকায় ওমর আলী মোল্লার পাড়া ও ইদ্রিস পাড়ার মাঝে মরা পদ্মা নদীতে তিন মাস যাবৎ অবাধে বাংলা ড্রেজিং মেশিন দিয়ে মাটিওবালু উত্তোলন করে তাহা বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করছে কাদের ফকির নামে এক বালু ব্যবসায়ী। অন্য দিকে দেব গ্রাম আতর আলী চেয়ারম্যান বাজার এলাকার পাশে মরা পদ্মায় ড্রেজিং মেশিন দিয়ে অবাধে মাটি ও বালু তুলে বিক্রি করছে  মিনু নামের আরেক বালু ব্যবসায়ী।
 ক্যানাল ঘাট এলাকা গফুর মন্ডল পাড়ায় দুই মাস ধরে মরা পদ্মায় দুটি বাংলা ড্রেজিং মেশিন দিয়ে মাটি ও বালু উত্তোলন করে  বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করছে  লোকমান ও আবজাল। এখন যে ভাবে মরা পদ্মায়  ড্রেজিং করে মাটি উত্তোলন করছে তাতে যে কোন সময় রাস্তসহ বাড়ী ঘর নদী গর্ভে চলে যাবে।এলাকা বাসী তাদেরকে বার বার  মাটি উত্তোলনে নিষেধ করলে তারা শুনে না বরং উল্টে তাদেরকে ভয় ভীতি দেখায়।  অবৈধ ড্রেজার দিয়ে বালু ব্যবসায়ীদের ভয়ে  কেউ মুখ খুলতে কেউ সাহস করে না। তারা সরকারী কাজের নাম করে অবৈধ ভাবে বাংলা ড্রেজিং মেশিন দিয়ে  মরা পদ্মা নদী থেকে অবাধে মাটি কেটে বিক্রি করছে।
স্থানীয় রবিউল শেখ বলেন দীর্ঘ দিন পদ্মা নদী থেকে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করছে ইসমাইল। তিনি প্রশাসনের চোখ ফাকি দিয়ে চর অঞ্চল থেকে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করছে।
মরা পদ্মার পাড়ে বসবাসকারী মো. তোফাজ্জেল হোসেন বলেন, এই ড্রেজিং মেশিন দিয়ে মাটি কাটায় নদী বহু ডিপ হয়েছে । এখানে ড্রেজিং মেশিনটি চলছে তিন মাস ধরে। বর্ষার সময় যদি নদীতে স্রোত শুরু হলে প্রথমেই আমার বাড়ীটি ধসে পড়বে। তার পরে নদীর স্রোতে এক টানে গ্রাম শেষ হয়ে যাবে। কাদের ফকির দেশের ক্ষতি করছে। সরকারী রাস্তার কাজের কথা বলে তিনি মাটির ব্যবসা করে যাচ্ছে। রাস্তার কাজ হয়ে গেছে বহু আগেই তাও তারা বলে রাস্তার কাজ করছি, আসলে তারা মাটি অন্য জায়গায় বিক্রি করছে।
রওশন আরা  বেগম বলেন, দুই বছর আগে আমাদের বাড়ী ঘর ভিটা মাটি নদী ভাংঙ্গনে বিলিন হয়ে যাওয়ার পরে এখানে এসে বাড়ীঘর করেছি। যে ভাবে ড্রেজিং মেশিন দিয়ে মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছে তাতে আবার ও আমাদের বাড়ী ঘর নদীতে চলে যাবে।
ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন কারী বালু ব্যবসায়ী  কাদের ফকির বলেন,আমি তিন মাস যাবৎ ড্রেজিং মেশিন চালাচ্ছি।উপজেলা প্রশাসনের কাছ থেকে কোন অনুমতি আনা হয়নি।
গোয়ালন্দ উপজেলা সহকারি (ভূমি) মো.আশরাফুল রহমান বলেন,মরা পদ্মার ড্রেজিংয়ের বিষয়ে বলতে পারবেন পানি উন্নয়ন বোর্ডে। আমি এ ব্যাপারে এখনও
অবগত নই।
পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী আরিফুর রহমান অংকুর বলেন,পদ্মা বা মরা পদ্মা নদীতে ড্রেসিং করে বালু উত্তোলন করার জন্য কোন অনুমতি  নেওয়া হয়নি। জেলা প্রশাসক এর সাথে আলাপ করে মোবাইল কোর্ট করতে হবে।


এ জাতীয় আরো খবর
Tech Support By Nagorikit.Com