Logo
ব্রেকিং :
বঙ্গবন্ধু শুরুর সময়, একটি ডলারও ছিল না- মানিকগঞ্জে গৃহায়ন মন্ত্রী রাণীশংকৈলে প্রাণীসম্পদ প্রদর্শনীর উদ্বোধন উপলক্ষে আলোচনা সভা  নবাবগঞ্জে প্রাণী সম্পদ প্রদর্শনী-২০২৪ উদ্বোধনী /সমাপনী অনুষ্ঠান সমাজসেবার বিশেষ অবদানে সম্মাননা স্মারক পেলেন দৌলতদিয়ার ইউপি চেয়ারম্যান রহমান মন্ডল ভিক্ষা ছেড়ে  বিকল্প কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে বিশেষ চাহিদা সম্পর্ণ রতনদের পাশে প্রশাসন। টাঙ্গাইল শহরে থমথমে অবস্থা ॥ ককটেল বিস্ফোরণ আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের পাল্টাপাল্টি সমাবেশ পুলিশি বাঁধায় পন্ড  দৌলতপুরে প্রাণি সম্পদ প্রদর্শণী নাগরপুরে প্রাণীসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী  অনুষ্ঠিত  ঘুমন্ত স্বামীর গোপণাঙ্গ কেটে সন্তান রেখেই পালালেন স্ত্রী ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস ২০২৪ উদযাপন উপলক্ষে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফি মামলায় দৌলতপুরের ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে

রিপোর্টার / ৭৩৪ বার
আপডেট বুধবার, ৫ জুলাই, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক:-০৫ জুলাই,২০২৩,বুধবার।

মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার চক মিরপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিক (৪৩)কে কারাগারে প্রেরন করেছে বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদলত ঢাকা-৯। তার বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণের অভিযোগ এনে গত ১৬ মে ২০২৩ইং তারিখে আশুলিয়া থানায় ডলি সবনম (তমা) (৩৪) মামলা করেন যার মামলা নম্বর-৪২। উল্লেখ্য,অভিযুক্ত শফিকুল ইসলাম শফিক চক মিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়নের চক হরিচরন গ্রামের মৃত আবু বকর সিদ্দিকের ছেলে । ভুক্তভোগী নারী দৌলতপুর উপজেলার বাসিন্দা ও আশুলিয়া এলাকার একটি তৈরি পোশাক কারখানায় কর্মকর্তা পদে চাকরি করেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ব্যক্তিগত কাজের সুবাদে চক মিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিকের সঙ্গে প্রায় ৮ বছর আগে ওই নারীর পরিচয় হয়। পরে মোবাইল ফোনে তাদের মধ্যে যোগাযোগ চলে। দীর্ঘ আলাপে গড়ে উঠে প্রেমের সম্পর্ক। একপর্যায়ে বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে তাদের শারীরিক সম্পর্ক হয়। পরে পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়-স্বজনের কাছে তাঁরা স্বামী-স্ত্রীর পরিচয় দিতেন। গত এপ্রিল মাসে ওই নারী বিয়ের জন্য চাপ দিলে বিয়েতে অস্বীকৃতি জানান চেয়ারম্যান শফিকুল। পরে ব্যক্তিগত ভিডিও এবং ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন শফিক।

এরপর ভুক্তভোগী ওই নারী আশুলিয়া থানায় বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোমেনুল ইসলাম। তিনি জানান, ‘ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফি আইনে শফিকুল ইসলাম শফিকের বিরুদ্ধে ওই নারী মামলা করেছিলেন। আজ ০৫ জুলা্ই বুধবার বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদলত ঢাকা-৯ আসামী চক মিরপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিক হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে দুই পক্ষের শুনানী শেষে বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদলতের বিচারক জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।


এ জাতীয় আরো খবর
Tech Support By Nagorikit.Com