Logo
ব্রেকিং :
বঙ্গবন্ধু শুরুর সময়, একটি ডলারও ছিল না- মানিকগঞ্জে গৃহায়ন মন্ত্রী রাণীশংকৈলে প্রাণীসম্পদ প্রদর্শনীর উদ্বোধন উপলক্ষে আলোচনা সভা  নবাবগঞ্জে প্রাণী সম্পদ প্রদর্শনী-২০২৪ উদ্বোধনী /সমাপনী অনুষ্ঠান সমাজসেবার বিশেষ অবদানে সম্মাননা স্মারক পেলেন দৌলতদিয়ার ইউপি চেয়ারম্যান রহমান মন্ডল ভিক্ষা ছেড়ে  বিকল্প কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে বিশেষ চাহিদা সম্পর্ণ রতনদের পাশে প্রশাসন। টাঙ্গাইল শহরে থমথমে অবস্থা ॥ ককটেল বিস্ফোরণ আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের পাল্টাপাল্টি সমাবেশ পুলিশি বাঁধায় পন্ড  দৌলতপুরে প্রাণি সম্পদ প্রদর্শণী নাগরপুরে প্রাণীসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী  অনুষ্ঠিত  ঘুমন্ত স্বামীর গোপণাঙ্গ কেটে সন্তান রেখেই পালালেন স্ত্রী ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস ২০২৪ উদযাপন উপলক্ষে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

নাগরপুরে মসজিদের নির্মাণ কাজে সহযোগিতা কামনা

মোঃ মাসউদুর রহমান ,স্টাফ রিপোর্টার / ২৪৯ বার
আপডেট রবিবার, ৩০ জুলাই, ২০২৩

মো মাসউদুর রহমান, স্টাফ রিপোর্টার  :৩০ জুলাই
অর্থাভাবে থমকে গেছে টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার মামুদনগর ইউনিয়নের শুনসী পশ্চিমপাড়া  আল মদিনা জামে মসজিদের নির্মাণ কাজ। ওই গ্রামের প্রবাসী মো. ইসমাইল হোসেন ও মো. শুকুর আলী মিয়া দীর্ঘদিন ধরে সৌদি আরবে থাকেন। তারা দুইজন সৌদির সৌন্দর্য্যমন্ডিত মসজিদ দেখে মুগ্ধ হয়ে নিজ এলাকায় সৌদি মডেলে দৃষ্টিনন্দন একটি মসজিদ স্থানীয় এলাকাবাসীর সহযোগীতায় স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। এগারো শতাংশ ভূমিতে ১৬টি পিলারের উপর ১ম ও ২য় তলার ছাদসহ একটি বড় গম্বুজের কাজ চলমান রয়েছে। তবে মসজিদের ২য় তলার কাজ সম্পন্ন হওয়ার আগেই অর্থাভাবে আটকে গেছে মসজিদটির কাজ। শুধু মসজিদ ভবনই নয়, বাকী রয়েছে ৭০ ফুট উচ্চ একটি মিনার, ওযুখানা ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা। এমন পরিস্থিতিতে প্রবাসী ও বিত্তবানদের সহযোগিতা কামনা করেছেন মসজিদ কমিটির সভাপতি মো. ইসমাইল হোসেন সহ দ্বায়িত্বশীলরা।
বর্তমানে মসজিদটিতে স্থানীয় বাসিন্দা ও পথচারীসহ সহ¯্রাধিক মুসল্লি নামাজ আদায় করেন। নির্মাণ কাজের সাথে জড়িত সংশ্লিষ্টরা জানান, ৭০ ফিট উচ্চু একটি মিনার, ওযুখানা ও স্যানিটেশনসহ মসজিদের মূল ভবনের সম্পূর্ণ নির্মান কাজ শেষ করতে প্রয়োজন মোটা অংকের আর্থিক সহায়তা। মুসল্লিদের প্রত্যাশা-আর্থিক সহায়তার হাত আরো প্রসারিত করবেন এলাকাবাসিসহ আশপাশ অঞ্চলের বিত্তবান ও প্রবাসীরা।
মসজিদ কমিটির সহ-সভাপতি সৌদি প্রবাসী মো. শুকুর আলী মিয়া বলেন, সৌদি আরবের একটি মসজিদের আদলে এই মসজিদটি নির্মাণ করা হচ্ছে। মসজিদটির কাজ সম্পূর্ণ হলে উপজেলার মধ্যে দেখার মত একটি মসজিদ হবে এটি। নির্মাণ কাজে এপর্যন্ত প্রায় ৬০ লক্ষ টাকা ব্যয় হয়েছে। মসজিদটি সম্পূর্ণ করতে আরো ১ কোটি টাকার প্রয়োজন। যা আমাদের পক্ষে কোন ভাবেই সম্ভব না ।
মসজিদ কমিটির সভাপতি সৌদি প্রবাসী মো. ইসমাইল হোসেন জানান, আমাদের ধারনা ছিল ৭০ থেকে ৮০ লাখ টাকায় মসজিদের কাজ শেষ করতে পারবো। কিন্তু বর্তমানে রডসহ সকল জিনিস পত্রের দাম বেড়ে যাওয়ায় প্রায় দিগুন খরচ হচ্ছে। তাই আমিসহ এলাকবাসী সকল বিত্তবান ও প্রবাসী ভাইদের সহযোগীতা চাচ্ছি। আপনাদের বিকাশ বা নগদ থেকে যে যতটুকু পারেন মসজিদ কমিটির এই নম্বরে ০১৭৪৬৪৬০৬৩২ সহযোগীতা করার অনুরোধ করছি।


এ জাতীয় আরো খবর
Tech Support By Nagorikit.Com