Logo
ব্রেকিং :
২ শিশুপুত্রসহ  ভাগ্নিকে হত্যার দায়ে যুবকের মৃত্যুদণ্ড কালিহাতী প্রেসক্লাবের নয়া সভাপতি রঞ্জন-সম্পাদক মিল্টন মানিকগঞ্জ কামিল মাদ্রাসার গভর্নিং বডি নির্বাচন স্থগিত নেত্রকোনায় অনুকূলচন্দ্রের নগর পরিক্রমা সিরাজগঞ্জে বিরোধের জের ধরে  প্রতিপক্ষের   রোপনকৃত ৫০টি  চারা গাছ কর্তনের অভিযোগ নাগরপুরে ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠিত  সাংবাদিকের  মৃত্যুতে নগরকান্দা প্রেসক্লাবে স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ভাঙ্গা থেকে বরিশাল হয়ে পায়রা বন্দর পর্যন্ত রেললাইন চালু করা হবে—-রেলপথ মন্ত্রী মোঃ জিল্লুল হাকিম সিরাজগঞ্জে শালুয়াভিটা সিনিয়র  মাদ্রাসায়  তিনটি পদে নিয়োগ পরীক্ষার  আগেই  মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে প্রার্থী চুড়ান্ত করার অভিযোগ  নাগরপুরে  শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ 
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব হলেন গুলশাহানা ঊর্মি

রিপোর্টার / ১৩২ বার
আপডেট বুধবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক:  ১৯ অক্টোবর, ২০২২

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে কর্মরত গুলশাহানা ঊর্মিকে প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে বুধবার (১৯ অক্টোবর) প্রেষণে এ নিয়োগের আদেশ জারি করা হয়েছে।

গুলশাহানা ঊর্মি জনসংখ্যা স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সেল, সহকারী পরিচালক, বাংলাদেশ বেতার, ঢাকা (বিসিএস তথ্য) বর্তমানে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রেস উইংয়ে সহকারী পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রেস উইংয়ে একজন প্রেস সচিব, দুইজন উপ-প্রেস সচিব ও দুইজন সহকারী প্রেস সচিব রয়েছেন। সরকারি নারী কর্মকর্তাদের মধ্যে প্রথম এই পদে দায়িত্ব পালনের সুযোগ পেয়েছেন গুলশাহানা ঊর্মি।

প্রসঙ্গত, জামালপুরের সরিষাবাড়ীর কৃতি সন্তান গুলশাহানা ঊর্মি ২০১০ সালের ১ ডিসেম্বর বিসিএস ২৮ ব্যাচের তথ্য ক্যাডারের কর্মকর্তা হিসেবে বাংলাদেশ বেতারে যোগদান করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগ থেকে বিএ (সম্মান), এমএ করেছেন।

উল্লেখ্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. গাজীয়ার রহমানের সন্তান গুলশাহানা ঊর্মি। তার পিতা নিজেও বিসিএস (এডমিন) হিসেবে ১৯৭২ সাল থেকে দেশসেবায় নিযুক্ত ছিলেন। মুক্তিযোদ্ধা বাবার আদর্শ ও চেতনাকে নিজের মধ্যে ধারণ করে গুলশাহানা ঊর্মি নিজেও সবসময়ই দেশপ্রেমে সম্মুজ্জ্বল।

গুলশাহানা ঊর্মি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া অবস্থায় ছাত্র রাজনীতিতে আত্মনিবেদিত ছিলেন। ২০০২ সালে থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ ছাত্রলীগের রোকেয়া হল শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন এবং ১/১১ এর সময়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার মুক্তি আন্দোলনে নেতৃত্ব দেন।

গুলশাহানা ঊর্মির স্বামী এন আই আহমেদ সৈকত ব্যবসায়ী। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটিতে উপ আইসিটি বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। গুলশাহানা ঊর্মি ও এন আই আহমেদ সৈকত দম্পতির দুই সন্তান- শায়ান ও সৈমী।


এ জাতীয় আরো খবর
Tech Support By Nagorikit.Com