Logo
ব্রেকিং :
২ শিশুপুত্রসহ  ভাগ্নিকে হত্যার দায়ে যুবকের মৃত্যুদণ্ড কালিহাতী প্রেসক্লাবের নয়া সভাপতি রঞ্জন-সম্পাদক মিল্টন মানিকগঞ্জ কামিল মাদ্রাসার গভর্নিং বডি নির্বাচন স্থগিত নেত্রকোনায় অনুকূলচন্দ্রের নগর পরিক্রমা সিরাজগঞ্জে বিরোধের জের ধরে  প্রতিপক্ষের   রোপনকৃত ৫০টি  চারা গাছ কর্তনের অভিযোগ নাগরপুরে ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠিত  সাংবাদিকের  মৃত্যুতে নগরকান্দা প্রেসক্লাবে স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ভাঙ্গা থেকে বরিশাল হয়ে পায়রা বন্দর পর্যন্ত রেললাইন চালু করা হবে—-রেলপথ মন্ত্রী মোঃ জিল্লুল হাকিম সিরাজগঞ্জে শালুয়াভিটা সিনিয়র  মাদ্রাসায়  তিনটি পদে নিয়োগ পরীক্ষার  আগেই  মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে প্রার্থী চুড়ান্ত করার অভিযোগ  নাগরপুরে  শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ 
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

ভূঞাপুরে নারীকে ধর্ষণের পর শপথ, প্রেমিকের বাড়িতে অনশন

রিপোর্টার / ৫৩ বার
আপডেট বৃহস্পতিবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২২

মুক্তার হাসান ,টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:১৩ অক্টোবর-২০২২,বৃহস্পতিবার।

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে এক নারীর সঙ্গে প্রতারণা করে ৪ লাখ ৩০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেওয়াসহ ধর্ষণ ও নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে প্রেমিক বেল্লাল হোসেন নামে এক বালু ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনা কাউকে জানালে তার সন্তান ও স্বামীকে প্রাণনাশের হুমকিও দেয় বেল্লাল। ঘটনাটি উপজেলার গোবিন্দাসী ইউনিয়নের চিতুলিয়াপাড়া এলাকায় ঘটে। পাওনা টাকা ফেরত, ধর্ষণ ও নির্যাতনের বিচার চেয়ে বুধবার (১২ অক্টোবর) রাত থেকে বেল্লালের বাড়িতে অনশনে বসেছে ওই নারী। পরে বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) সকালে তাকে মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দেয় বেল্লালের স্ত্রী ও মা। বেল্লাল পলাতক রয়েছে। স্থানীয়রা জানান, ভুক্তভোগীর স্বামী অটোভ্যান চালক। বিদেশ যাওয়ার জন্য চেষ্টা করে আসছে। এরই মধ্যে বেল্লালের সাথে তার দীর্ঘদিনের টাকা লেনদেনের সম্পর্ক ছিল। শুনেছি বিভিন্ন ব্যাংক থেকে লোন তুলেছিল। সেই টাকা বালু ব্যবসায়ী বেল্লালকে ধার দেন। তাদের দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্কও ছিল। ভুক্তভোগী নারী শাহিনুর বেগম জানান, বেল্লাল বালু ব্যবসার নামে আমার কাছ থেকে ৪ লাখ ৩০ হাজার টাকা ধার নিয়েছে। টাকা নেওয়ার পর থেকে নানা সময়ে কু-প্রস্তাব দিতো। প্রস্তাবে রাজি না হলে তার পাওনা টাকা ফেরত দেবে না বলে সে জানায়। একপর্যায়ে টাকা ফেরত দেওয়ার কথা বলে বেল্লাল তার বিভিন্ন আত্মীয়ের বাড়িতে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। তিনি আরো জানান, ধর্ষণ ও টাকা ধার নেওয়ার বিষয়টি কাউকে যেন না জানাই এ জন্য ছোট কোরআন শরিফ দিয়ে শপথ করান। একথা কাউকে জানালে আমার সন্তান ও স্বামীকে মেরে ফেলার হুমকি দিতো বেল্লাল। কয়েকদিন ধরে সেই পাওনা টাকা চেয়ে আসলে তালবাহানা শুরু করে। এনিয়ে গ্রাম্যভাবে মিমংসার কথা বলেও মিমংসা করেনি। তাই আমি বাধ্য হয়ে ধর্ষণের বিচার ও পাওনা টাকা ফেরতের জন্য বেল্লালের বাড়িতে অনশন করছি। কিন্তু বেল্লালের মা ও স্ত্রী আমাকে বেদম মারধর করে। আমার শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করেছে। বেল্লালের স্ত্রী ও মা এ বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, বেল্লালের সাথে তার কোন সম্পর্ক নেই। আর তাকে মারধরও করা হয়নি। এছাড়াও বেল্লাল তার থেকে টাকাও ধার নেয়নি। সে টাকা কামানোর জন্য এমন করছে। এ ঘটনার বিষয়ে জানতে বেল্লালকে তার বাড়িতে পাওয়া যায়নি, ফোন করলেও রিসিভ করেননি।


এ জাতীয় আরো খবর
Tech Support By Nagorikit.Com