Logo
ব্রেকিং :
বঙ্গবন্ধু কাপ টেনিস টুর্নামেন্ট-২০২৩ এর ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত      পাবিপ্রবির ১৪তম ব্যাচের শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত টাঙ্গাইলে জ্বীনের বাদশা ও তার সহযোগী গ্রেফতার নগরকান্দায় শশা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের  বার্ষিক ক্রীড়া  প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত  ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ অফিস বার্ষিক পরিদর্শনে রেঞ্জ ডিআইজি আদমদীঘিতে ইউএনও’র কম্বল পেলেন প্রতিবন্ধী জোৎস্না বাগেরহাটে মোরেলগঞ্জে চেতনানাশক খাবারে শিশুসহ ৪ জন হাসাপাতালে লোহাগড়ায় মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ যুবকের লাশ উদ্ধার গোয়ালন্দে মাঠ  দিবস পালিত নাগরপুরে সরকারের উন্নয়নের ধারা প্রচারে ব্যস্ত আওয়ামীলীগ নেতা হিমু
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

শপথ নিতে ভোটারদের হুঁশিয়ারি, আতঙ্কে বিএনপির বিজয়ী প্রার্থী জাহিদ

রিপোর্টার / ১৯ বার
আপডেট রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০১৯

কালের কাগজ ডেস্ক:২১ এপ্রিল-২০১৯,রবিবার।

একাদশ সংসদে নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের শপথ নেয়ার সময় ফুরিয়ে আসছে৷ হাতে আছে ১০ দিনেরও কম সময়৷ অন্যদিকে শপথ বিষয়ে ভোটারদের চাপ তো আছেই। তবুও বিএনপির নোংরা রাজনীতির বলি হতে চলেছেন একাধিক অসহায় বিজয়ী প্রার্থী। এমনই একজন ঠাকুরগাঁও-৩ আসন থেকে বিজয়ী প্রার্থী জাহিদুর রহমান। সম্প্রতি তিনি প্রকাশ্যে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, শপথ না নিলে তার এলাকার লোকজন তাকে হেনস্তা করতে পারে। এমনকি শারীরিকভাবে লাঞ্ছিতও করতে পারে। তার ভাষ্যমতে, ঠাকুরগাঁওয়ের জনগণ ইতোমধ্যেই শপথ না নিলে তাদের সঙ্গে বেইমানি করা হবে বলেও হুমকি ধমকি দিতে শুরু করেছেন।

এ প্রসঙ্গে ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের অধিভুক্ত রানীশংকৈল উপজেলার হোসেনগাঁও ইউনিয়নের স্থানীয় বাসিন্দা আবুল হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, একাদশ নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী জাহিদুর রহমানকে স্থানীয় জনগণ সংসদে জনগণের কথা জানানোর জন্য ভোট দিয়েছেন। জনগণের সমস্যার কথাই যদি তিনি সংসদে বলতে না পারেন তাহলে নির্বাচনে দাঁড়ানোর কোনো প্রয়োজন ছিলো না। শপথ না নিলে বিএনপি নেতা জাহিদুর রহমান এলাকায় আর কখনো ঢুকতে পারবেন কিনা সন্দেহ আছে।

তিনি বলেন, বিএনপির নোংরা রাজনীতির জন্য ঠাকুরগাঁও-৩ আসন থেকে বিজয়ী প্রার্থী জাহিদুর রহমান শপথ নিতে চাচ্ছেন না। যা স্থানীয় জনগণ কখনই মানবে না। সাধারণ জনগণ মনে করেন, জনগণের স্বার্থে তার শপথ নেয়া উচিত।

প্রসঙ্গত, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনের মধ্যে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে মোট ৮ জন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন৷ তাদের মধ্যে ছয় জন বিএনপি’র এবং দুই জন গণফোরামের৷ ৩০ জানুয়ারি জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন বসলেও ৮ মার্চ শপথ নেন মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে গণফোরামের সংসদ সদস্য সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ৷ আর ২ এপ্রিল শপথ নেন গণফোরাম থেকে নির্বাচিত আরেকজন সংসদ সদস্য সিলেট-২ আসন থেকে নির্বাচিত মোকাব্বির খান।

তবে বিএনপি থেকে নির্বাচিত ছয় জন এখনো শপথ নেননি৷ নির্বাচনের পরপরই বিএনপি তথা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ তুলে নির্বাচন বয়কট করে৷ দলের নির্বাচিত এমপিরা শপথ নেবেন না বলে জানানো হয়৷ পরে গণফোরামের দুই এমপি শপথ নিলেও বিএনপির বিজয়ীরা সংসদে যাবে না বলে স্পষ্ট ঘোষণা দেয়া হয়। এ নিয়ে দলের অভ্যন্তরে মতানৈক্য দেখা দিলেও শপথ না নেয়ার সিদ্ধান্তেই অনড় দলের একাংশ।


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com