Logo
ব্রেকিং :
বঙ্গবন্ধু কাপ টেনিস টুর্নামেন্ট-২০২৩ এর ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত      পাবিপ্রবির ১৪তম ব্যাচের শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত টাঙ্গাইলে জ্বীনের বাদশা ও তার সহযোগী গ্রেফতার নগরকান্দায় শশা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের  বার্ষিক ক্রীড়া  প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত  ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ অফিস বার্ষিক পরিদর্শনে রেঞ্জ ডিআইজি আদমদীঘিতে ইউএনও’র কম্বল পেলেন প্রতিবন্ধী জোৎস্না বাগেরহাটে মোরেলগঞ্জে চেতনানাশক খাবারে শিশুসহ ৪ জন হাসাপাতালে লোহাগড়ায় মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ যুবকের লাশ উদ্ধার গোয়ালন্দে মাঠ  দিবস পালিত নাগরপুরে সরকারের উন্নয়নের ধারা প্রচারে ব্যস্ত আওয়ামীলীগ নেতা হিমু
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

সর্বস্তরে কড়া নজরদারি, প্রশ্ন ফাঁসের কোনো সুযোগ নেই

রিপোর্টার / ২৭ বার
আপডেট শুক্রবার, ৫ এপ্রিল, ২০১৯

কালের কাগজ ডেস্ক:০৫ এপ্রিল-২০১৯,শুক্রবার।

২ এপ্রিল থেকে শুরু হয়েছে ২০১৯ সালের উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এইচএসসি) পরীক্ষা। প্রতিবারের মতো এবারও প্রশ্নপত্র ফাঁস ও গুঞ্জন ঠেকাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে নজরদারি শুরু করেছে প্রশাসন। থেমে নেই চক্রগুলোও। এর ফলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর নজরদারিতে এবারের এইচএসসি পরীক্ষাতেও গ্রেফতার হচ্ছে প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রের সদস্যরা।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা বলছেন, সর্বস্তরে কড়া নজরদারি রাখা হচ্ছে। নির্বিঘ্নে পরীক্ষা শেষ করতে যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সূত্রে জানা গেছে, ফেসবুক, মেসেঞ্জার, হোয়াটস অ্যাপ ও ইমোসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিভিন্ন শাখায় বিভিন্ন গ্রুপ, পেইজে নিয়মিত মনিটরিং করা হচ্ছে। এসব গ্রুপে সক্রিয়রা প্রশ্নপত্র ফাঁসের প্রলোভন দেখালেও সুবিধা করতে পারছে না চক্রগুলো। তবে গ্রুপের সদস্য ও অ্যাডমিনদের উপর নজরদারি চালানো হচ্ছে। তাদেরও আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

এদিকে, বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যমের গ্রুপগুলোকে ‘ভুয়া’ বলে আখ্যায়িত করেছেন আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির প্রধান ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক জিয়াউল হক। তিনি জানিয়েছেন, যত দিন যাচ্ছে আমরা তত কঠোর হচ্ছি। গত কয়েকটি পরীক্ষা কোনো রকম প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ পাওয়া যায়নি। এবার এইচএসসি পরীক্ষাতেও প্রশ্নপত্র ফাঁসের কোনো সুযোগ নেই। খুবই কঠোর নিরাপত্তার মাধ্যমে প্রশ্নপত্রের সুরক্ষা নিশ্চিত করা হয়েছে। এ ছাড়া এবার প্রশ্ন ফাঁস এবং নকল রোধে কঠোর নীতি অবলম্বন করা হচ্ছে।

পরীক্ষা সংশ্লিষ্টরা বলছেন, প্রশ্ন ফাঁস হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। শিক্ষার্থী অভিভাবকরা প্রতারণা থেকে বাঁচতে তাদের বর্জন করুক- এটা আমাদের কাম্য।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ডিভিশন মারফত জানা গেছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুয়া প্রশ্নপত্র পোস্ট ও গুজব রটনাকারীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনতে সাইবার ইউনিট ও গোয়েন্দা পুলিশের সমন্বয়ে বিশেষ দল গঠন করা হয়েছে। এ ছাড়া ইলেকট্রনিক ডিভাইস দিয়ে নকল রোধে পরীক্ষা কেন্দ্রে বসানো হয়েছে ম্যাগনেট, অপটিক ও ফ্রিকোয়েন্সি ডিটেক্টর। ফলে কোনোভাবেই প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার সুযোগ নেই।

ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ডিভিশনের উপ-কমিশনার (ডিসি) মো. আলিমুজ্জামান বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে চক্রটি এসব ভুয়া পোস্ট দিয়ে গুজব ছড়াচ্ছে, তাদের নজরদারিতে রাখা হয়েছে। আমাদের টিম অভিযান চালাচ্ছে। তাদেরকে আটক করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।’

এরই মধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নজরদারিতে ভুয়া প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও জানা গেছে।


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com