Logo
ব্রেকিং :
বঙ্গবন্ধু শুরুর সময়, একটি ডলারও ছিল না- মানিকগঞ্জে গৃহায়ন মন্ত্রী রাণীশংকৈলে প্রাণীসম্পদ প্রদর্শনীর উদ্বোধন উপলক্ষে আলোচনা সভা  নবাবগঞ্জে প্রাণী সম্পদ প্রদর্শনী-২০২৪ উদ্বোধনী /সমাপনী অনুষ্ঠান সমাজসেবার বিশেষ অবদানে সম্মাননা স্মারক পেলেন দৌলতদিয়ার ইউপি চেয়ারম্যান রহমান মন্ডল ভিক্ষা ছেড়ে  বিকল্প কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে বিশেষ চাহিদা সম্পর্ণ রতনদের পাশে প্রশাসন। টাঙ্গাইল শহরে থমথমে অবস্থা ॥ ককটেল বিস্ফোরণ আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের পাল্টাপাল্টি সমাবেশ পুলিশি বাঁধায় পন্ড  দৌলতপুরে প্রাণি সম্পদ প্রদর্শণী নাগরপুরে প্রাণীসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী  অনুষ্ঠিত  ঘুমন্ত স্বামীর গোপণাঙ্গ কেটে সন্তান রেখেই পালালেন স্ত্রী ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস ২০২৪ উদযাপন উপলক্ষে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

সৈয়দপুরে মাইক্রোবাসে  পিষ্ট হয়ে স্কুলছাত্র নিহত

রিপোর্টার / ৮১ বার
আপডেট বুধবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২২

শাহজাহান আলী মনন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:২৬ অক্টোবর-২০২২,বুধবার।
নীলফামারীর সৈয়দপুরে মাইক্রোবাস চাপায় প্রান হারালো তারিকুল ইসলাম (১৩) নামে এক স্কুল ছাত্র। বুূধবার (২৬ অক্টোবর) সকাল ১০ টায় উপজেলার খাতামধুপুর ইউনিয়নের হামুরহাট এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে। নিহত কিশোরটি ওই ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের  রথেরপুকুর খামাতপাড়ার জোবেদুল ইসলামের ছেলে এবং তারাগঞ্জের হ্যাভেন ফ্লাওয়ার স্কুলের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র।
নিহত তারিকুল সকাল ১০ টায় তারাগঞ্জ বাজার থেকে প্রাইভেট পড়ে মোটর সাইকেল নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে হামুর বাজারের উত্তর পার্শ্বে গলাকাটা ব্রীজের কাছে পৌঁছে। এসময়
বিপরীত দিক থেকে আসা তারাগঞ্জগামী একটি মাইক্রোবাসের (ঢাকা- মেট্রো-চ-৫৩২৮৩১) সামনে পড়লে মুখোমুখি ধাক্কা লেগে পড়ে যায়।  তাকে চাপা দিয়ে পালিয়ে চালক।
এলাকাবাসীর মতে গ্রামের লোকাল রাস্তায় মোটরযান চালানোয় বেপরোয়া গতির কারণেই এই দূর্ঘটনা ঘটেছে। তাছাড়া মাইক্রোবাসের ড্রাইভার ফরতাজ (২৫) এর ভাতিজা সোহেল (১৩) গাড়ী চালাচ্ছিল আর চালক পাশে বসা ছিল। যে কারনে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু বরণ করেন তারিকুল।
তারা আরোও জানায়, এর আগেও ৪-৫ বার দূর্ঘটনা ঘটিয়েছে চালক ফরতাজ। তারপরও গাড়ীর মালিক জুয়েল রানা তাকে গাড়ী চালানোর অনুমতি দেয়। অথচ সে ব্যস্ততম এই সড়কে ভাতিজা সোকে ড্রাইভিং শেখাচ্ছিল। ঘটনার পর হামুরহাটে লোকজন মাইক্রোবাস আটল করলেও থেকে তারা পলাতক রয়েছে।
তারিকুলের মামা ছামেদুল ইসলাম বলেন, আমার স্কুল পড়ুয়া ভাগিনাকে পরিকল্পিত ভাবে ঘাতক ড্রাইভার ফরতাজ মেরে ফেলেছে। আমি এর সঠিক বিচার চাই। এবিষয়ে নিহত পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি নেয়া হয়। কিন্ত ইউপি চেয়ারম্যান ও পুলিশের মধ্যস্থতায় লাশ দাফনের সিদ্ধান্ত হয়।
দীর্ঘ ৫: ঘন্টা লাশ প্রখর রোদে রাস্তায় ফেলে রেখে অবশেষ এক লাখ টাকার বিনিময়ে লাশ হস্তান্তরের সমঝোতা হয়েছে। একারনে
মাইক্রোবাসটি আটক রাখা হয়েছে। টাকা পরিশোধের পর তা ছাড়া হবে। একটি সূত্রের মতে নিহতের পরিবার কোন টাকাই নিবেনা। একটি চক্র এই টাকা হাতিয়ে নিতে প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের ব্যবহার করেছে।
খাতামধুপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মাসুদ রানা পাইলট ও সাবেক চেয়ারম্যান জুয়েল চৌধুরী কেউই এব্যাপারে মন্তব্য করতে রাজি হয়নি। তারা বলেন, সবাই একই এলাকার। দূর্ঘটনায় একজন চলে গেছে। এখন আইন আদালত করলে আরও দুইজনের জীবন ধ্বংস হয়ে যাবে। তাই উভয় পরিবার নিজেরাই সমঝোতা করেছে।


এ জাতীয় আরো খবর
Tech Support By Nagorikit.Com