Logo
ব্রেকিং :
মানিকগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন সভাপতি আমিনুল, সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান ভোট চোররা ভোট চুরি করতেই জানে: শেখ হাসিনা নেত্রকোনায় মহিলা পরিষদের সাংবাদিক সম্মেলন নগরকান্দায় কৃষকের মাঝে পেঁয়াজের বীজ বিতরণ  যশোরে প্রধানমন্ত্রীর জনসভা হতে চুরি যাওয়া মূল্যবান ১২ টি মোবাইল ফোন গোয়ালন্দে উদ্ধার  সৈয়দপুরে ভোর রাতে ৫ দোকানের  ২০ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই সৈয়দপুরে বর্ণাঢ্য আয়োজনে উদ্বোধন হলো কাউন্সিলর গোল্ডকাপ ফুটবল টূর্ণামেন্ট  আগামী জুনে শুভ উদ্বোধন করা হবে  সিরাজগঞ্জ বিসিক শিল্প পার্ক  ……… শিল্প মন্ত্রী নূরুল মজিদ নাগরপুরে খেজুর রস আহরণে ব্যস্ত গাছিরা টাঙ্গাইলে আশ্রয়ণের ঘরে ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল, দিশেহারা ৪০ পরিবার
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

খালেদা জিয়ার হাঁটুর ব্যথা অনেক পুরনো: তথ্যমন্ত্রী

রিপোর্টার / ১২ বার
আপডেট রবিবার, ১০ মার্চ, ২০১৯

কালের কাগজ ডেস্ক: ১০ মার্চ ২০১৯, রবিবার।
খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতাকে বড় করে দেখিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত না করার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার হাঁটুর ব্যথা অনেক পুরনো। ওনার প্রতি সম্মান ও শ্রদ্ধা রেখেই বলতে চাই- এই ব্যথা নিয়েই তিনি দুইবার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। বিরোধীদলীয় নেত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। বিএনপির মতো একটি দলের চেয়ারপারসনের দায়িত্ব পালন করছেন। এটি কোনও নতুন অসুখ না। এরপরও ওনাকে পরিপূর্ণ সুস্থ করার জন্য সরকার অত্যন্ত আন্তরিক। সে কারণে তার এই হাঁটুর ব্যথা পুরনো হলেও তাকে আরও ভালো চিকিৎসায় বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।

রোববার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, সকালে ফখরুল ইসলাম আলমগীর সংবাদ সম্মেলন করেছেন। আমি জানি তিনি যদি এই বিষয়ে বেশি কথা না বলেন, তাহলে ওনার মহাসচিবের দায়িত্ব পালন করা কঠিন হতে পারে। এ জন্য ওনাকে বলতে হয়। তাই বলে জনগণকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করবেন না।

বিএনপির অবস্থা এখন নাচতে না জানলে উঠান বাঁকার মতো এমন মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক বলেন, নির্বাচন কমিশন গঠন করার সময় একটি কমিটির মাধ্যমে, জাতীয় সংলাপের মাধ্যমে গঠন করা হয়েছিল। সেখানে বিএনপির প্রস্তাবনা থেকে একজন নির্বাচন কমিশনারও আছেন। অথচ আওয়ামী লীগের প্রস্তাবনা থেকে কোনও কমিশনার সেখানে স্থান পাননি।

ড. হাছান বলেন, আমি তাদেরকে অনুরোধ জানাবো নির্বাচন কমিশনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার যে নীতি আপনারা অনুসরণ করছেন, তা থেকে সরে আসুন। আমরা চাই একটি শক্তিশালী দল হিসেবে বিএনপি থাকুক। আমাদের গঠনমূলক সমালোচনা করুক। আমি আহ্বান জানাবো আপনারা পার্লামেন্টে আসুন। এখন যেমন রাজপথে সমালোচনা করছেন, তার পরিবর্তে পার্লামেন্টে এসে সমালোচনা করুন।

খ্যাতিমান অভিনেত্রী ও সাবেক সংসদ সদস্য সারাহ বেগম কবরীর সভাপতিত্বে আলোচনায় অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী রফিকুল আলম, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা, চিত্রনায়িকা শাহনুর, কণ্ঠশিল্পী এস.ডি রুবেল, চিত্রনায়ক শাকিল খান প্রমুখ।


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com