Logo
ব্রেকিং :
মানিকগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন সভাপতি আমিনুল, সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান ভোট চোররা ভোট চুরি করতেই জানে: শেখ হাসিনা নেত্রকোনায় মহিলা পরিষদের সাংবাদিক সম্মেলন নগরকান্দায় কৃষকের মাঝে পেঁয়াজের বীজ বিতরণ  যশোরে প্রধানমন্ত্রীর জনসভা হতে চুরি যাওয়া মূল্যবান ১২ টি মোবাইল ফোন গোয়ালন্দে উদ্ধার  সৈয়দপুরে ভোর রাতে ৫ দোকানের  ২০ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই সৈয়দপুরে বর্ণাঢ্য আয়োজনে উদ্বোধন হলো কাউন্সিলর গোল্ডকাপ ফুটবল টূর্ণামেন্ট  আগামী জুনে শুভ উদ্বোধন করা হবে  সিরাজগঞ্জ বিসিক শিল্প পার্ক  ……… শিল্প মন্ত্রী নূরুল মজিদ নাগরপুরে খেজুর রস আহরণে ব্যস্ত গাছিরা টাঙ্গাইলে আশ্রয়ণের ঘরে ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল, দিশেহারা ৪০ পরিবার
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

রাঙ্গামাটিতে ব্রাশফায়ারে নিহত ৭

রিপোর্টার / ২০ বার
আপডেট মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ, ২০১৯

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি :১৯ মার্চ ২০১৯, মঙ্গলবার ।
নির্বাচনী সহিংসতায় রক্তাক্ত হল রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি। দ্বিতীয় ধাপে উপজেলা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষে নির্বাচনী সরঞ্জাম নিয়ে যাওয়ার পথে সোমবার সন্ধ্যায় বাঘাইছড়িতে দুর্বৃত্তরা দুটি গাড়িতে ব্রাশফায়ার করে। এতে অন্তত ৭ জন নিহত হয়েছেন। বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এমএ মঞ্জুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হচ্ছেন- আনসার-ভিডিপি সদস্য মো. আল আমিন, বিলকিস, জাহানারা, মন্টু চাকমা, মিহির কান্তি দত্ত, মো. আবু তৈয়ব ও পোলিং অফিসার আমির হোসেন। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। গুলিবিদ্ধ অন্তত ১১ জনের মধ্যে ৪ পুলিশ সদস্য, এক শিশু, দুই নারী, তিন আনসার সদস্য রয়েছেন।

এরা সবাই নির্বাচনী কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত। এর মধ্যে আবু তৈয়বকে হেলিকপ্টারে করে চট্টগ্রাম সিএমএইচে নেয়ার সময় তিনি মারা যান। কেন এবং কারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে তা জানাতে পারেনি।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিভিশনের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা রাত ৯টায় যুগান্তরকে জানান, গুলিতে ৬ জন নিহত এবং ১১ জন আহত হয়েছেন। আহতদের ৫টি হেলিকপ্টারে প্রাথমিকভাবে চট্টগ্রামে অবস্থিত সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) নিয়ে আসা হচ্ছে। তাদের চট্টগ্রাম সিএমএইচে চিকিৎসা দেয়া হবে। তবে কারও অবস্থা গুরুতর হলে ঢাকায় পাঠানো হবে।

উপজেলা নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে ভোট গণনা শেষে সোমবার সন্ধ্যার দিকে উপজেলার সাজেক বাঘাইহাট থেকে দীঘিনালা ফেরার পথে ৯ কিলোমিটার নামক স্থানে এ মর্মান্তিত ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, বাঘাইছড়ির সাজেকের কংলাক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট গণনা শেষে সেখানে দায়িত্বরত প্রিসাইডিং অফিসারসহ অন্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা নির্বাচনী সরঞ্জাম নিয়ে দুটি জিপ গাড়িতে করে বিজিবির প্রহরায় খাগড়াছড়ির দীঘিনালা ফিরছিলেন।

জিপ গাড়ি দুটি ৯ কিলোমিটার নামক এলাকায় যাওয়ার পর ওতপেতে থাকা দুর্বৃত্তরা গাড়ি দুটি লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি ব্রাশফায়ার করতে থাকে। কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই গুলিতে ঘটনাস্থলেই ৬ জন এবং পরে আরও একজন নিহত হন। আহতদের মধ্যে ওই ভোট কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার আবদুল হান্নান আরব মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রথমে খাগড়াছড়ি হাসপাতালে নেয়া হয়। রাঙ্গামাটির পুলিশ সুপার মো. আলমগীর কবির প্রথমে ৫ জন নিহত হওয়ার কথা নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, তবে নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে। জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দীন বলেন, ঘটনার পর তাৎক্ষণিকভাবে যেসব ব্যবস্থা নেয়া দরকার তা নেয়ার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এদিকে ভোট চলাকালে বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোটদান নিয়ে সকাল থেকে দিনভর দুই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ নিয়ে টানটান উত্তেজনা ও চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছিল। এর মধ্যে দুপুরের দিকে জনসংহতি সমিতি (মূল) চেয়ারম্যান প্রার্থী বড় ঋষি চাকমা তার সমর্থিত দুই ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন।

তিনি অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগ এবং সংস্কারপন্থী জেএসএস নজিরবিহীন ভোট ডাকাতি ও ব্যাপক হারে জাল ভোট দেয়ায় আমি ভোট বর্জন করছি। আমরা অনতিবিলম্বে বাঘাইছড়ি উপজেলা পরিষদে ভোটগ্রহণ স্থগিত করে পুনরায় অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবি করছি। পরে পাল্টা অভিযোগ করে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বড় ঋষি চাকমার বক্তব্যের জবাব দিয়ে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সংস্কারপন্থী জেএসএসের প্রার্থী সুদর্শন চাকমা বলেছেন, বড় ঋষির অভিযোগ অসত্য। প্রশাসনকে বিতর্কিত করতে তিনি ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন। এসব পাল্টাপাল্টি অভিযোগ ঘিরে উভয় দলে উত্তেজনার সৃষ্টি হয় বলে জানায় স্থানীয় সূত্রগুলো।

নির্বাচন কমিশনের নিন্দা :  জানায়, রাতে ইসির যুগ্ম সচিব (জনসংযোগ) এসএম আসাদুজ্জামান এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ঘটনার নিন্দা জানান। তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন জাতীয় দায়িত্ব পালনরত ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের ওপর এ ধরনের কাপুরুষোচিত বর্ববর হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে।

কমিশন নিহতদের প্রতি গভীর শোক এবং তাদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছে। একই সঙ্গে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছে। ইতিমধ্যে নির্বাচন কমিশন আহতদের চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিয়েছে। নির্বাচন কমিশন যে কোনো পরিস্থিতিতে নিহতদের পরিবারের এবং আহতদের পাশে আছে এবং থাকবে।

কালের কাগজ/প্রতিনিধি/জা.উ.ভি


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com